kalerkantho


পদ্মায় নিখোঁজ শিক্ষার্থীদের মধ্যে একজনের লাশ উদ্ধার

দোহার-নবাবগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি   

১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২১:১৮



পদ্মায় নিখোঁজ শিক্ষার্থীদের মধ্যে একজনের লাশ উদ্ধার

দোহারে মৈনট ঘাটের অদূরে পদ্মা নদীর মধ্যবর্তী চরে ফুটবল খেলতে গিয়ে নিখোঁজ দুই শিক্ষার্থীর মধ্যে শাওন সরকার নামে একজনের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তবে এখনো সন্ধান মেলেনি মিজানুর রহমান মিন্টুর।

গত শুক্রবার বিকেলে চরে ফুটবল খেলার এক পর্যায়ে বলটি নদীতে পড়ে যায়। বলটি উঠিয়ে আনতে মিজান, শাওনসহ চারজন নদীতে নামেন। পরে দুজন পানি থেকে উঠে এলেও মিজান ও শাওনের খোঁজ মেলেনি। এর মধ্যে আজ রবিবার বিকেলে শাওনের লাশ নদীতে ভেসে উঠে।

জানা যায়, মিজান ও শাওন ইউনিভার্সিটি অব এশিয়া প্যাসিফিক ফার্মগেট শাখার তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। শাওন মানিকগঞ্জ জেলার হাটিবাড়ি উপজেলার রত্মদিয়া গ্রামের নিতাই সরকারের ছেলে আর মিজান কুষ্টিয়া জেলার মিরপুর উপজেলার আহম্মদপুর গ্রামের নজরুল ইসলাম চৌধুরির ছেলে।

নিহত শাওনের বোন ঝুমা সরকার বলেন, গত শুক্রবার বিকেলে নিখোঁজের পর দুই দিন ফায়ার সার্ভিসের ডুবরিরা উদ্ধার অভিযান চালালেও শনিবার বিকেলে তা বন্ধ করে দেয়। কিন্তু আমরা রবিবার সকাল থেকে নিজ উদ্যোগে ট্রলার নিয়ে লাশের সন্ধানে নদীতে ঘুরতে থাকি। বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে ওই চরের কাছেই একটি লাশ দেখতে পেয়ে আমরা এগিয়ে যায়।

গিয়ে দেখি আমার ভাই শাওনের লাশ।  

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বিকেলে লাশটি ভেসে উঠার খবর পেয়ে দোহার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নির্দেশে ঘটনাস্থলে ছুটে যান উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) মোজ্জামেল হক রাসেল ও ফরিদপুর জেলার চরভদ্রাসন থানার ওসি রামপ্রসাদ ভক্ত। পরে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে মৈনটঘাটে নিয়ে আসেন।

এ ব্যাপারে চরভদ্রাসন থানার ওসি রামপ্রসাদ ভক্ত বলেন, পরিবারের কোন অভিযোগ না থাকায় সুরতাহাল শেষে শাওনের লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।  


মন্তব্য