kalerkantho


দিনমজুর পরিবারকে হয়রানির প্রতিবাদে এলাকাবাসীর মানববন্ধন

নিলফামারি প্রতিনিধি   

১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



দিনমজুর পরিবারকে হয়রানির প্রতিবাদে এলাকাবাসীর মানববন্ধন

নীলফামারীর জেলার কিশোরগঞ্জ উপজেলায় বড়ভিটা ইউনিয়নের মেলাবর গ্রামে একটি দরিদ্র পরিবারকে মিথ্যা মামলায় হয়রানির প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী। আজ শনিবার বেলা ১২টার দিকে গ্রামের ক্যামেরার বাজারের সামনের সড়কে ঘন্টাব্যাপী ওই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

গ্রামের তিন শতাধিক নারী-পুরুষ ওই মানববন্ধনে অংশ নেয়।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, গ্রামের দিনমজুর আমিনুর রহমানসহ তার পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে একের পর এক মিথ্যা মামলা দায়ের করে হয়রানি করে আসছে একই গ্রামের আব্দুর রহমান। সর্বশেষ চলতি বছরের ১৬ জানুয়ারি আব্দুর রহমান তার মেয়ে মুক্তা আক্তারকে দিয়ে বাড়িতে হামলা, ভাঙচুর, মারডাংসহ টাকা ছিনতাইয়ের একটি মিথ্যা মামলা থানায় দায়ের করেন আমিনুর রহমানসহ পরিবারের পাঁচ সদস্যের বিরুদ্ধে। থানা পুলিশ সরেজমিনে ঘটনা যাচাই না করে মিথ্যা মামলাটি নথিভুক্ত করেন বলে তারা অভিযোগ করেন।  

গ্রামের কৃষক বছির উদ্দীন বসুমিয়া বলেন, আব্দুর রহমানে মেয়ে মুক্তা আক্তারের সঙ্গে আমিনুর রহমানের ছেলে হাফিজুর রহমানে বিয়ে হয় ২০১১ সালের ২৪ এপ্রিল। এরপর ২০১৪ সালের ২৭ অক্টোবর এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে উভয় পক্ষের সম্মতিতে বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটে। সে সময়ে মুক্তা আক্তারের দাবির সকল পাওনা বুঝে দেন আমিনুর রহমান। এরপর ওই বছরের ৩০ নভেম্বর ও ২০১৬ সালের ২৭ এপ্রিল পর পর দুটি মামলা দায়ের করেন মুক্তা আক্তার। এসব মামলায় নির্যাতন, যৌতুক অভিযোগসহ মোহরানার দাবি করা হয়।

ওই দুই মামলায় সুবিধা করতে না পেরে আব্দুর রহমান গত ১৬ জানুয়ারি তার মেয়ে মুক্তাকে দিয়ে বাড়িতে হামলা, ভাঙচুর, মারডাংসহ টাকা ছিনতাইয়ের মিথ্যা মামলা দায়ের করেন থানায়। ওই মামলার আদালতে জামিন নিতে গেলে হাফিজুরের জামিন নামঞ্জুর করেন আদালতের বিচারক। হাফিজুর গত ২০ দিন ধরে হাজতবাস করছে।

মানববন্ধন চলাকালে বছির উদ্দীনসহ গ্রামবাসীর পক্ষে বক্তৃতা দেন শিক্ষক নরেন্দ্র নাথ রায়, কৃষক জবেদ আলী, নাদের হোসেন, আব্দুর রহমান, শহর আলী প্রমুখ। তারা ওই দরিদ্র পরিবারটিকে হয়রানীর প্রতিবাদ জানিয়ে দায়ের করা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান।

এর আগে দিনমজুর আমিনুর রহমান ক্যামেরার বাজারে পরিবারের সদস্যদের সাথে নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, 'আমি দিন আনি দিন খাই। তারা মিথ্যা মামলা দিয়ে আমাকেসহ পরিবারের সদস্যদের বিপদে ফেলেছেন। আব্দুর রহমান আমার ১১ শতক জমি দখল করে নিয়ে উল্টো আমাকে ভিটেছাড়া করার উদ্দেশ্যে একের পর এক মিথ্যা মামলা দায়ের করছেন। ' ওই সংবাদ সম্মেলনে আমিনুর রহমানের স্ত্রী হাফেজা বেগম কান্নায় ভেঙে পড়ে বলেন, 'তাদের ওই মিথ্যা মামলায় আমার ছেলে হাফিজুর রহমান ২০ দিন ধরে কারাগারে আছে। এসব হয়রানী থেকে আমি মুক্তি চাই। '

এ বিষয়ে কথা বলার জন্য আব্দুর রহমানের বাড়িতে গিয়ে কাউকে পাওয়া যায়নি। মুঠোফোনের নম্বর সংগ্রহ করতে চাইলে প্রতিবেশীরা জানান তিনি মুঠোফোন ব্যবহার করেন না। কিশোরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বজলুর রশীদ বলেন, 'মামলাটি নথিভুক্ত করা হয়েছে। তদন্ত চলছে। দ্রুত আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করা হবে। '


মন্তব্য