kalerkantho


বিবস্ত্র করে ভিডিও ধারণ, আত্মহত্যার চেষ্টা স্কুলছাত্রীর

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি   

১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২০:২৬



বিবস্ত্র করে ভিডিও ধারণ, আত্মহত্যার চেষ্টা স্কুলছাত্রীর

গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় এক স্কুলছাত্রীকে বিবস্ত্র করে ভিডিও চিত্র ধারণের দৃশ্য সোস্যাল মিডিয়ায় ছেড়ে দেওয়ার হুমকি দিয়েছে বখাটেরা। আর এ অপমান সইতে না পেরে মেয়েটি বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা করে।

গত রবিবার রাতে কোটালীপাড়া উপজেলার পিঞ্জুরী গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে আজ শুক্রবার বিকেলে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করেছেন।

ওই স্কুলছাত্রী কোটালীপাড়া উপজেলার পিঞ্জুরী ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এ বছর এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছিল। এ ঘটনার পর থেকে সে পরীক্ষা বন্ধ করে দিয়েছে।  

এদিকে এ ঘটনায় বিষপানের পর মেয়েটিকে প্রথমে কোটালীপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে তাকে গোপালগঞ্জ আড়াই শ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তার অবস্থার উন্নতি হলে তাকে ফের কোটালীপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে চিকিৎসা প্রদান করা হচ্ছে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন স্কুলছাত্রীটি সাংবাদিকদের জানায়, গত রবিবার রাতে সে ঘরের বারান্দায় বসে পড়াশোনা করছিলো। মা-বাবা ঘরে ঘুমাচ্ছিলো।

বারান্দা থেকে বের হয়ে বাইরে ওয়াশ রুমে যাওয়ার সময় পিঞ্জুরী গ্রামের শ্রীধাম মন্ডলের ছেলে সম্রাট মন্ডল, তার সহযোগী বঙ্কিম বিশ্বাসের ছেলে সজল বিশ্বাস ও নির্মল বসুর ছেলে মিঠু বসু তার মুখ চেপে ধরে তাকে তুলে নিয়ে তাদের ওয়াশ রুমের কাছে নিয়ে যায়। সেখানে তাকে বিবস্ত্র করে ওয়াশ রুমের বৈদ্যুতিক আলোতে মোবাইলে ভিডিও চিত্র ধারণ করে এবং ওই ভিডিও সোস্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেয়।  

সম্রাট তাকে প্রেম নিবেদন করে ব্যর্থ হয়ে এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে জানায় ওই শিক্ষার্থী। সে আরো জানায়, এই ন্যাক্কারজনক ঘটনার  অপমাণ সইতে না পেরে ঘটনার পরপরই সে বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা করে।  

ওই বখাটেদের প্রতিবেশী পিঞ্জুরী গ্রামের হাবিবুর রহমান শেখ বলেন, সম্রাট, মিঠু ও সজল সমবয়সী। তারা মাদক সেবন করে। এলাকায় ভবঘুরে বখাটে হিসেবে পরিচিত। এর আগেও তারা একাধিক মহিলাকে উত্যক্ত ও যৌন হয়রানি করেছে। সম্রাট ওই স্কুল ছাত্রীকে প্রেম নিবেদন করে ব্যর্থ হয়ে দীর্ঘদিন ধরে উত্যক্ত করে আসছিলো।

মেয়েটির পিতা স্কুল শিক্ষক বলেন, এ ঘটনা ফাঁস করলে বখাটেরা আমাদের হত্যার হুমকি দিয়েছে। তাদের ভয়ে আমি থানায় অভিযোগ দায়ের করতে সাহস পাচ্ছি না। এ ঘটনার পর আমার মেয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এসএসসি পরীক্ষা দিতে পারছে না। আমি এ ঘটনার বিচার চাই।  

এ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে কোটালীপাড়া থানার ওসি (তদন্ত) মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ওই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে আজ  শুক্রবার বিকেলে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করেছেন। দোষী ওই বখাটেদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


মন্তব্য