kalerkantho


ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে দীর্ঘ যানজট

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১২:৪৮



ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে দীর্ঘ যানজট

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে মুন্সিগঞ্জের ভবের চর থেকে শুরু হওয়া যানজট প্রায় ১৬ কিলোমিটার দূরে গিয়ে থেমেছে। কাঁচপুর সেতু হয়ে শিমরাইল গিয়ে শেষ হওয়া এ যানজটে ভোগান্তিতে পড়েছেন পথে বের হওয়া মানুষেরা।

শুক্রবার ভোর রাতে মহাসড়কের গজারিয়া এলাকায় একটি সড়ক দুর্ঘটনা, মেঘনা টোল প্লাজায় ধীরগতিতে টোল আদায় ও মহাসড়কে ছুটির দিনে অতিরিক্ত গাড়ির চাপ থাকার কারণে এ যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। যানজট নিরসনে পুলিশকে হিমশিম খেতে হচ্ছে। তাছাড়া অনেক যাত্রীদের পায়ে হেঁটে তাদের গন্তব্যে পৌঁছাতে দেখা যায়। যানজটের কবলে পড়ে নারী, শিশু ও বয়স্কদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

কাঁচপুর হাইওয়ে থানার ওসি শেখ শরিফুল আলম জানান, মুন্সিগঞ্জের গজারিয়া এলাকায় শুক্রবার ভোররাতে একটি সড়ক দুর্ঘটনা থেকে এ যানজটের সূত্রপাত। পাশাপাশি মেঘনা টোল প্লাজায় টোল আদায়ে ধীরগতির কারণে এ যানজট দীর্ঘ হতে থাকে। এ যানজট মুন্সিগঞ্জের ভবের চর এলাকা থেকে শুরু হয়ে সিদ্ধিরগঞ্জের শিমরাইল পর্যন্ত গিয়ে পড়ে। তিনি জানান, পুলিশ বিভিন্ন পয়েন্টে যানজট নিরসনে কাজ করছে যাচ্ছে। তবে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে যানজট হাল্কা হয়ে এসেছে।

সোনারগাঁ থানার ওসি শাহ মো. মঞ্জুর কাদের জানান, গজারিয়া থেকে শুরু হওয়া যানজটের প্রভাব সোনারগাঁয়ের অংশে এসে পড়েছে। যানজট নিরসনের হাইওয়ে পুলিশের পাশাপাশি থানা পুলিশ কাজ করে যাচ্ছে। তীব্র যানজটের ফলে নারী, শিশু ও বয়স্করা অসুস্থ হয়ে পড়েছে। দীর্ঘ সময় বসে থেকে অনেকে ক্লান্ত হয়ে ঘুমিয়ে পড়েছেন। এদিকে ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কে কয়েকটি বাস স্ট্যান্ড রয়েছে। মদনপুর এলাকায় আবার রয়েছে মদনপুর-গাজীপুর এশিয়ান হাইওয়ে। ফলে মদনপুর স্ট্যান্ডে সব সময় যানজট থাকায় সেটার প্রভাব পড়ে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে। এ মহাসড়কের কাঁচপুর, দড়িকান্দি, মোগরাপাড়া, মেঘনা ও টিপরদী এলাকাতেও গণপরিবহন থামিয়ে যাত্রী ওঠানামা করা হয়।

 


মন্তব্য