kalerkantho


যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে অমানুষিক নির্যাতন

গৌরনদী প্রতিনিধি   

৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২৩:০১



যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে অমানুষিক নির্যাতন

বরিশালের গৌরনদী উপজেলার কটকস্থল গ্রামের এক সন্তানে জননী গৃহবধু রুপালী বেগমকে (২২) পাষণ্ড স্বামী ও তার পরিবারের লোকজন অমানুষিক নির্যাতন করেছে। গুরুতর আহত রুপালী বেগমকে গৌরনদী উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। দাবিকৃত যৌতুকের এক লাখ টাকা না পেয়ে এ নির্যাতন করা হয়েছে বলে জানিয়েছে ভুক্তভোগী। এ ঘটনায় বুধবার সকালে নির্যাতিতার পিতা বার্থী গ্রামের ইদ্রিস সরদার বাদি হয়ে পাঁচজনকে আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রুপালী বেগম অভিযোগ করেন, গত তিন বছর পূর্বে কটকস্থল গ্রামের করমালী ফকিরের পুত্র রেজাউল ফকিরের সাথে তার সামাজিকভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের সময় তার বাবা স্বামী রেজাউলকে (২৮) নসিমন ক্রয়ের জন্য নগদ ৭০ হাজার টাকা ও একভরি স্বর্ণালংকার যৌতুক দেয়। বিয়ের পর থেকে স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজন আরও এক লাখ টাকা যৌতুকের জন্য তাকে বিভিন্ন সময় চাপ সৃষ্টি করে আসছিলো।  

দাবিকৃত যৌতুকের টাকার জন্য স্বামী ও তার পরিবারের লোকজন গতবছর তাকে অমানুষিক নিযার্তন করে বাবার বাড়িতে তাড়িয়ে দেয়। এ অবস্থায় গত নয় মাস পূর্বে রেজাউল দ্বিতীয় স্ত্রী হিসেবে তানিয়া বেগমকে (২০) বিয়ে করেন। স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির খোঁজ খবর নিতে আড়াই বছরের পুত্র ইব্রাহিম ফকিরকে সাথে নিয়ে রুপালী গত সোমবার দুপুরে স্বামীর বাড়িতে যায়। যৌতুকের দাবিকৃত টাকা না নিয়ে ওই বাড়িতে যাওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে রুপালীকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করা হয় বলে জানিয়েছে রুপালী।

 


মন্তব্য