kalerkantho


বরিশালে দুপুরের খাবার খেয়ে মাদ্রাসার ৫১ শিক্ষার্থী অসুস্থ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০৮:২০



বরিশালে দুপুরের খাবার খেয়ে মাদ্রাসার ৫১ শিক্ষার্থী অসুস্থ

বরিশাল নগরের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের উলালঘুনী এলাকার ইসলামীয়া নূরানী হাফিজিয়া মাদ্রাসা ও এতিমখানায় খাবার খেয়ে এক শিক্ষকসহ ৫১ জন শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়েছেন।
অসুস্থদের মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারি রাত পৌনে ৯ টায় বরিশাল জেনারেল (সদর) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
হাসপাতালে ভর্তিরতরা হলেন- ইমাম উদ্দিন, মো. ইয়ামিন, ফয়েজ, মামুন, মুসা, সাব্বির, আ. রহমান, নুরুল ইসলাম, আবু নাঈম, আসাদুজ্জামান, জুনায়েদ, হাসান, জিহাজ, সাইফুল, নাজমুল, তাজুল, সাব্বির, নাঈম, আজিম মীর, ফয়সাল, সায়েম, হাসান, ওলিউল্লাহ, মুসা, জুবায়ের, মো. শামীম, আবু রায়হান, মো. রাকিব, মিনহাজ, রাশেদুল ইসলাম সহ ৫১ জন।
মাদ্রাসার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আনোয়ার হোসেন সিকদার জানান, মাদ্রাসার আবাসিকে ৬০ জন শিক্ষার্থী খাবার খায়, দুপুরে তারা খাবারে ডাল ও লাউ তরকারি খেয়েছে। এরপর আসরের নামাজের পর মাদ্রাসার একের পর এক শিক্ষার্থী টয়লেটে যেতে শুরু করেন। বিষয়টি তাদের গোচরে আসলে কিছু সময় দেখে রাত ৯টার দিকে শিক্ষক (হাফেজ) জহিরুল ইসলামসহ ৩০ শিক্ষার্থীকে নিয়ে সদর হাসপাতালে আসেন। পরে আরও ২১ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
তিনি জানান, খাবারে কেউ কিছু মিশিয়ে থাকতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। এটা মাদ্রাসার জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে হতে পারে।
অসুস্থ শিক্ষার্থী তাজুল জানিয়েছেন, দুপুরে খাবার খাওয়ার পর সবাই ঘুমিয়ে পড়েন। মাগরিবের নামাজের পর একে একে প্রায় সব শিক্ষার্থীর পেটে ব্যথা দেখা দেয় এবং কিছুসময় বাদে ঘন ঘন টয়লেটে যেতে শুরু করেন শিক্ষার্থীরা।


হাসপাতালের ডায়েরিয়া ওয়ার্ডের সেবিকা মলিনা মন্ডল জানান, প্রাথমিকভাবে পেটে ব্যথা, ঘন ঘন টয়লেট ও বমির প্রবণতা রয়েছে ভর্তিরতদের। খাবারের বিষক্রিয়ায় এমনটা হতে পারে। চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী তাদের চিকিৎসা চলছে।


মন্তব্য