kalerkantho


মঠবাড়িয়া পৌরসভার বর্ধিত কর ৫০ শতাংশ কমানোর ঘোষণা

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, পিরোজপুর    

৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৫:৪১



মঠবাড়িয়া পৌরসভার বর্ধিত কর ৫০ শতাংশ কমানোর ঘোষণা

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া  পৌরবাসীর দীর্ঘদিনের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে পৌর কর্তৃপক্ষ  বর্ধিত করের ৫০ শতাংশ কমানোর ঘোষণা দিয়েছে। গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় স্থানীয় শহীদ মিনার মুক্তমঞ্চে পৌরবাসীসহ সকল শ্রেণি পেশার মানুষের উপস্থিতিতে মতবিনিময় সভায় পৌর মেয়র রফিউদ্দিন আহমেদ ফেরদৌস বর্ধিত পৌর করের ৫০ শতাংশ কমানোর ঘোষণা দেন।

জানা গেছে, মঠবাড়িয়া পৌরসভা গত ২০১৬-২০১৭ অর্থ বছরে কয়েক গুণ বৃদ্ধি করে নতুন করে পৌর কর নির্ধারণ করে। এতে পৌরবাসী চরম আর্থিক চাপের মধ্যে পড়ে। এতে স্থানীয় পৌরবাসী, হোল্ডিং মালিক ও ব্যবসায়ীরা ক্ষুব্ধ হয়ে এ বর্ধিত পৌর কর প্রত্যাহারের দাবিতে  গত ১৩ আক্টোবর পৌর শহরে মানববন্ধনসহ প্রতিবাদ সমাবেশ করে। সমাবেশে পৌরবাসী বর্ধিত কর না দেওয়ার ঘোষণা দিলে পৌর কর্তৃপক্ষ নতুন করে ধার্য করা কর আদায় কার্যক্রম স্থগিত রাখে।

এদিকে, সোমবার সন্ধ্যায় পৌর মেয়র ও আওয়ামী লীগ সভাপতি মো. রফিউদ্দিন আহম্মেদ ফেরদৌস পৌরবাসীসহ হোল্ডিং মালিকদের নিয়ে মতবিনিময় সভার আয়োজন করেন। এ সময় পৌর শহরের হোল্ডিং কর সহনীয় পর্যায়ে নির্ধারণ করার দাবি জানিয়ে বক্তব্য দেন, মঠবাড়িয়া সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ মো. গোলাম মোস্তফা, আ‌ওয়ামী লীগ নেতা ফারুকুজজামান, অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক নূর হোসাইন মোল্লা, বণিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক সামসুল আহসান খোকা, যুবলীগ সভাপতি শাকিল আহম্মেদ নওরোজ, আওয়ামী মৎস্য লীগ সভাপতি ফজলুল হক মনি, সাংবাদিক মিজানুর রহমান মিজু, শিক্ষক সিদ্দিকুর রহমান, ছাত্রলীগ সভাপতি নজরুল ইসলাম সোহেল প্রমুখ।

মতবিনিময় সভায় পৌর মেয়র রফিউদ্দিন আহম্মেদ ফেরদৌস বর্ধিত করের ৫০ শতাংশ কমানোর ঘোষণা দেন। পাশাপাশি তিনি সময়মত কর পরিশোধ করে পৌরসভার সার্বিক উন্নয়নে পৌর নাগরিকদের  সহযোগিতা কামনা করেন।

 


মন্তব্য