kalerkantho


সুনামগঞ্জে রক্তক্ষয়ি সংঘর্ষে নারীসহ আহত অর্ধশতাধিক

নেত্রকনা-সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি   

৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



সুনামগঞ্জে রক্তক্ষয়ি সংঘর্ষে নারীসহ আহত অর্ধশতাধিক

সুনামগঞ্জের ধর্মপাশায় ইজরা নামক একটি বিল দখলকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামের লোকজনের মধ্যে রক্তক্ষয়ি এক সংঘর্ষে ৫ নারী ও সাবেক ইউপি সদস্যসহ কমপক্ষে অর্ধশতাধিক লোক আহত হয়েছে। এর মধ্যে আশংকাজনক অবস্থায় সাবেক ইউপি সদস্য শুক্কুর আলী (৬৫), ফজর আলী (২৮), আছমা আক্তার (৩৫) ও শামছু মিয়াসহ ৬ জনকে আজ রবিবার দুপুর ২টায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

আহত ২২ জনকে ধর্মপাশা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। বাকীদের স্থানীয়ভাবে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। আজ রবিবার সকাল সাড়ে ১১টায় উপজেলার জয়শ্রী ইউনিয়নের বানারশিপুর ও স্বরশ্বতিপুর গ্রামের লোকজনের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, উপজেলার জয়শ্রী ইউনিয়নের স্বরশ্বতীপুর ও বানারশিপুর গ্রামের পাশে ইজরা নামক ৫ একর আয়তনের একটি বিল ৬০ হাজার টাকায় উপজেলা পরিষদ থেকে ইজরা নেন বানারশিপুর গ্রামের আব্দুল মোতালিব (৪৮)। ওই বিলটির পাশেই রয়েছে স্বরশ্বতিপুর গ্রামের জামে মসজিদের ৩-৪টি ডোবা। আজ রবিবার সকালে ইজরা বিলের ইজারাদার আব্দুল মোতালিব তার গ্রামের লোকজনসহ ৩-৪টি শ্যালো মেশিন নিয়ে মসজিদের ডোবাসহ ওই বিলটি শুকিয়ে মাছ ধরতে গেলে স্বরশ্বতিপুর গ্রামের লোকজন সেখানে গিয়ে তাদেরকে বাধা দেয়।

এ নিয়ে দুই গ্রামের লোকজনের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায় সংঘর্ষ বাধে। সংঘর্ষে প্রতিপক্ষের লোকজনের ধারালো অস্ত্র, টেঁটা, বল্লম, লাঠি-সোটা ও ইট-পাটকেলের আঘাতে ৫ নারীসহ কমপক্ষে অর্ধশত লোক আহত হয়।

ধর্মপাশা থানার ওসির দায়িত্বে থাকা এসআই শেখ মো.রুবেল ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে কালের কণ্ঠকে বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন থাকায় এলাকার পরিস্থিতি এখন শান্ত রয়েছে। তবে দুই পক্ষের লোকজনই আহতদের চিকিৎসা নিয়ে ব্যস্ত থাকায় কোনো পক্ষই এখনো এব্যাপারে থানায় অভিযোগ নিয়ে আসেনি।


মন্তব্য