kalerkantho


পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে প্রাণ হারালেন সাংবাদিক শিমুল

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৯:৪২



পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে প্রাণ হারালেন সাংবাদিক শিমুল

পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে গিয়েই সাংবাদিক আব্দুল হাকিম শিমুল প্রাণ হারিয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন তার ভাই মকবুল হোসেন । তিনি বলেন, ‘সংঘর্ষের সময় গুলিবর্ষণের ছবি তোলার কারণেই মেয়রের ভাই পিন্টু শিমুলের মাথায় গুলি করে।

শিমুলের ভাইয়ের অভিযোগের বিষয়ে পৌর মেয়র হালিমুল হক মিরু বলেন, ‘আমি ওকে টার্গেট করবো কেন। ও আমার প্রিয় পাত্র। গুলি নয়, আমার প্রতিপক্ষের ছোড়া ককটেলের আঘাত লেগেছিল তার। আমি তো ফাঁকা গুলি করেছি। ’   

তবে লাশের সুরতহাল শেষে এ বিষয়ে সিরাজগঞ্জ থানার ওসি রেজাউল হক জানান, শিমুলের মাথার পেছন থেঁতলে গেছে। এছাড়া তার মাথায় গুলির চিহ্ন রয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশটি বর্তমানে সিরাজগঞ্জ সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত, শাহজাদপুরের দিলরুবা বাস টার্মিনাল থেকে উপজেলা সদর পর্যন্ত রাস্তার কাজ নিয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে কালিবাড়ি এলাকায় শাহজাদপুর পৌর মেয়র মিরুর ছোট ভাই হাসিবুল ইসলাম পিন্টু পৌর আওয়ামী লীগের বহিষ্কৃত সভাপতি ভিপি রহিমের শ্যালক ছাত্রনেতা বিজয়কে বেধড়ক মারধর করে। এতে তার হাত-পা ভেঙে যায়।

এ খবর ছড়িয়ে পড়লে দলের কর্মী-সমর্থক ও তার মহল্লা কান্দাপাড়ার লোকজন ক্ষিপ্ত হয়ে দিলরুবা বাস টার্মিনাল এলাকায় গিয়ে মহাসড়ক অবরোধ করে। এ অবস্থায় অবরোধকারীদের একটি অংশ ক্ষিপ্ত হয়ে মনিরামপুর এলাকায় অবস্থিত পৌর মেয়রের বাড়ি ঘিরে ইট-পাটকেল মারতে থাকে। এ সময় মেয়র তার নিজের শটগান দিয়ে গুলি করলে ঘটনাস্থলে উপস্থিত সমকালের প্রতিনিধি শিমুলের মাথায় ও মুখে গুলি লাগে। এতে গুরুতর আহত হন তিনি। আজ শুক্রবার ঢাকায় নেওয়ার পথে দুপুরে তার মৃত্যু হয়।  


মন্তব্য