kalerkantho


সাভার ও আশুলিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত দুইজন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২২:৪১



সাভার ও আশুলিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত দুইজন

সাভার ও আশুলিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নারীসহ দুইজন নিহত ও অন্তত ২০ জন আহত হয়েছে। পুলিশ জানায়, আজ বুধবার সকালে হেমায়েতপুর এলাকা থেকে একটি লেগুনা পরিবহনে একজন নারী একটি শিশুকে নিয়ে আমিনবাজার যাচ্ছিলেন।

পরে তাদের লেগুনাটি ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের তুরাগ এলাকায় পৌঁছলে পিছন থেকে বেপরোয়াগতির একটি যাত্রীবাহী বাস লেগুনাটিকে ধাক্কা দিয়ে পালিয়ে যায়। এসময় ঘটনাস্থলেই কুলসুম আক্তার (৩২) নামের ওই নারী নিহত হয়েছেন। নিহত কুলসুম মালিকগঞ্জ জেলার সাটুলিয়া থানা এলাকার সামসুল হকের স্ত্রী। খবর পেয়ে সাভার মডেল থানা পুলিশ ওই নারীর মরদেহ উদ্ধার করেছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সাভার ট্রাফিক পুলিশের টিআই ইলিয়াস হোসেন।

অপর দুর্ঘটনাটি ঘটে বুধবার সকালে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের সাভারের জোড়পুল এলাকায়। বাস যাত্রীরা জানায়, সকালে গুলিস্তান-ধামরাই রুটের ডি-লিংক নামের একটি যাত্রীবাহী বাস যাত্রীদের নিয়ে গুলিস্তানের উদ্দেশ্যে যাচ্ছিল। বাসটি ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের সাভারের জোড়পুল এলাকায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মহাসড়কের উপর উল্টে যায়। এসময় বাসে থাকা অন্তত ২০ জন যাত্রী আহত হয়।

পরে স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে সাভার ও হেমায়েতপুরের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করে। বিষয়টি নিশিচত করেছেন সাভার মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এস এম কামরুজ্জামান।

অপরদিকে আশুলিয়ায় রাস্তা পারাপারের সময় বাস চাপায় আলামিন নামের এক মাদ্রাসা শিক্ষার্থী নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার সন্ধ্যার দিকে আব্দুল্লাহপুর-বাইপাইল মহাসড়কের আশুলিয়ার ইউনিক এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত আলামিন নরসিংহপুর এলাকার তারা মিয়ার ছেলে। আশুলিয়া থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) ওমর ফারুক জানান, আলামিন নরসিংহপুর থেকে বগাবাড়ি মাদ্রাসায় আসছিলেন। এসময় ইউনিক এলাকায় এসে আব্দুল্লাহপুর-বাইপাইল মহাসড়ক পারাপারের সময় দ্রুত গতির একটি বাস আলামিনকে চাপা দিয়ে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা গুরতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে সাভারের এনাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।


মন্তব্য