kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৭ জানুয়ারি ২০১৭ । ৪ মাঘ ১৪২৩। ১৮ রবিউস সানি ১৪৩৮।


তাহিরপুরে দুই পক্ষের সংঘর্ষে নারীসহ আহত অর্ধশত

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি    

১২ জানুয়ারি, ২০১৭ ১৫:২১



তাহিরপুরে দুই পক্ষের সংঘর্ষে নারীসহ আহত অর্ধশত

সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে বাড়ির সীমানা নিয়ে বিরোধের জের ধরে দুই পক্ষের সংঘর্ষে নারীসহ অন্তত অর্ধশত লোকজন আহত হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের তরংশ্রীপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত ছয়জনকে সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল এবং অন্যদের তাহিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। এ ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, তরংশ্রীপুর গ্রামের নুরুল হক ও একই গ্রামের জাহাঙ্গীর আলমের মধ্যে বাড়ির সীমানা নিয়ে বিরোধ চলছে। আজ বৃহস্পতিবার নুরুল হক তার সীমানায় গাছ রোপণ করতে গেলে জাহাঙ্গীর আলম এতে বাধা দেন। এ নিয়ে উভয়ের মধ্যে প্রথমে কথাকাটাকাটি হয়। পরে উভয়ের আত্মীয়-স্বজনরা দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। ঘণ্টাব্যাপী চলা এ সংঘর্ষে ছয় নারীসহ উভয় পক্ষের অন্তত অর্ধশত আহত হন।

আহত নুরুল হক, এরশাদ, আবুল কাশেম, বাদশা মিয়া, ফজর আলী, শাহজালাল, আফজাল মিয়া, ইসলামনুর, আশিক নুর, আব্দুল খলিল, হাবিব মিয়া, ফয়জুল মিয়া, নিজাম উদ্দিন, এহছান মিয়া, ইনছান মিয়া, আলী রেজা, লালসাদ মিয়া, আবুল হুদা, দিলশাদ মিয়া, নাইম উদ্দিন, দেলোয়ার, খলিল, ডালিম, জুলহাস, জয়সাদ, আসাদ নুর, এরশাদ, আলী শাদ, লায়েছ নুর, তারিদ নুর, তামিম হোসেন, রিজিয়া বেগম, আরশ বেগম, রবিউল বেগম, মারজান বেগম, লোকমান মিয়া, আনোয়ার হোসেন, জনিক মিয়া, ঝুমা বেগম, রনিক মিয়া, জাকির হোসেন, মশাহিদ মিয়া, আলমগীর হোসন, আকতার হোসেন, কিতাব আলী, শরিফ মিয়া, মাফিক মিয়া এংরাজুল, শামছুন নুর মিয়া, মেহেদী, রফিক মিয়া, সামায়ুন ও আসমা বেগমসহ আহতদের সিলেট ওসমানী মেডিক‍্যাল কলেজ, তাহিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এবং সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

তাহিরপুর থানার ওসি নন্দন কান্তি ধর বলেন, "সংঘর্ষের খবর পেয়েছি। এতে উভয় পক্ষের বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। এখন পরিস্থিতি শান্ত। " তবে সংঘর্ষের ঘটনায় কোনো পক্ষই এখনো অভিযোগ দায়ের করেনি বলে জানান তিনি।

 


মন্তব্য