kalerkantho


কুমিল্লায় শিশু গৃহকর্মীকে নির্যাতন, গৃহকর্ত্রী পলাতক

নিজস্ব প্রতিবেদক, কুমিল্লা   

২২ অক্টোবর, ২০১৬ ২২:২২



কুমিল্লায় শিশু গৃহকর্মীকে নির্যাতন, গৃহকর্ত্রী পলাতক

কুমিল্লায় ৫ বছরের এক শিশু গৃহকর্মীর ওপর অমানষিক নির্যাতন করেছে গৃহকর্ত্রী। খুন্তির ছ্যাঁকায় শিশুটির শরীরের বিভিন্ন অংশ ক্ষত বিক্ষত হয়ে গেছে।

আজ শনিবার সন্ধ্যায় নগরীর কালিয়াজুড়ি মাজার সংলগ্ন এলাকার একটি ভবনের তিন তলা থেকে বন্দি অবস্থায় ইভা নামের ওই গৃহকর্মীকে উদ্ধার করে পুলিশ।

শিশুটি নিজের নামও ঠিকভাবে বলতে পারে না। কি হয়েছে জিজ্ঞাসা করলে শুধু আঘাতের ক্ষত চিহ্ন দেখায় আর ফ্যাল ফ্যাল করে তাকিয়ে থাকে। উৎসুক মানুষের ভিড় আর পুলিশের উপস্থিতিতে তার চোখে-মুখে ফুটে উঠে আতঙ্কের ছাপ। নাম জানতে চাইলে মৃদু কণ্ঠে শিশুটি বলে ‘ইভা’। কে মেরেছে ? ‘পলি খালা’। এই দুটি উত্তর ছাড়া আর কিছুই বলতে পারছে না শিশুটি।

এ ব্যাপারে কোতয়ালী থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক আবুল হোসেন জানান, আইনউদ্দিন শাহ মাজার রোড এলাকায় একটি শিশুকে আটকে রেখে প্রহারের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে গৃহকর্ত্রী পলি পালিয়ে যান। পুলিশ, এলাকাবাসী ও বাড়ির মালিক মাহাবুবুর রহমানের সহায়তায় ভবনের তিন তলার একটি কক্ষ থেকে ইভাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাই।

ইভাকে তার গৃহকর্ত্রী পলি খুন্তি আগুনে পুড়িয়ে শিশুটির হাতে ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে বেশ কয়েকটি ছ্যাঁকা দিয়েছে। আগুনে পোড়া ক্ষতের যন্ত্রণা ও আতঙ্কে নির্বাক ইভা জানিয়েছে, তার বাবার নাম নজরুল ইসলাম নজু । এ ছাড়া আর কোন তথ্য দিতে পারছে না সে।

তবে শিশুটি যে বাসায় কাজ করতো তার মালিকের নাম-ঠিকানা আমরা সংগ্রহ করেছি। শিশুটি দেবিদ্বার উপজেলার প্রজাপতি গ্রামের মাহাবুবর রহমানের স্ত্রী রোমানা আক্তার পলির (৪০) বাসায় কাজ করত।

স্থানীয় সূত্র জানায়, মসজিদের উত্তর পাশের ভবনের তিন তলায় প্রায়ই শিশুর চিৎকার শোনা যেত। গত কয়েকদিন যাবৎ বেশ কয়েকবার শিশুর চিৎকার শুনতে পেয়ে স্থানীয়দের মনে সন্দেহ হলে পুলিশে খবর দেওয়া হয়।  


মন্তব্য