kalerkantho

রবিবার। ৪ ডিসেম্বর ২০১৬। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ডিমলায় মুরগি ব্যবসায়ীর রহস্যজনক মৃত্যু

নীলফামারী প্রতিনিধি   

২০ অক্টোবর, ২০১৬ ১৮:৪৬



ডিমলায় মুরগি ব্যবসায়ীর রহস্যজনক মৃত্যু

নীলফামারীর ডিমলা উপজেলায় জিয়ারুল ইসলাম (৩২) নামের এক মুরগি ব্যবসায়ীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। গত বুধবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার গয়াবাড়ি ইউনিয়নের দক্ষিণ গয়াবাড়ি গ্রামের নিহতের বাড়ির আঙ্গিনা থেকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

সে ওই গ্রামের আব্দুল হকের ছেলে।

জিয়ারুল আত্মহত্যা করেছে বলে স্বজনদের একটি পক্ষ দাবি করলেও তার (জিয়ারুল) স্ত্রীর দাবি জিয়ারুলকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে।

নিহতের স্ত্রী সাহিদা বেগম তার স্বামী জিয়ারুলকে শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ করে বলেন, “ঘটনার রাতে আমি আমার বাবার বাড়িতে ছিলাম। আমার ভাসুর আব্দুল জলিল ও তার লোকজন আমার স্বামীকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর ঘরে লাশ ঝুলিয়ে রেখে আত্মহত্যার প্রচারণা চালান। ”

সাহিদা বলেন, “প্রায় এক সপ্তাহ আগে পারিবারিক কলহের জের ধরে আমার ভাসুর আব্দুল জলিল ও তার স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকা আমাকে বেদম মারপিট করেন। আমি আহত হয়ে ডিমলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নেই। এঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ করেছি। ওই অভিযোগের তদন্তে পুলিশ আসার কথা শুনে আমার ভাসুর ও তার লোকজন আমার স্বামীকে হত্যা করেছেন। ”

অপরদিকে নিহতরে বড় ভাই আব্দুল জলিল বলেন, “পারিবারিক কলহ থাকতে পারে। এ জন্য নিজের ভাইকে হত্যার প্রশ্নই উঠেনা। ঘটনার দিন বুধবার ছোট ভাই জিয়ারুল ইসলাম বিভিন্ন গ্রামে ঘুরে মুরগি কিনে এলাকার সুটিবাড়ি বাজারে তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে রেখে বিকেলে বাড়ি আসে। এর কিছুক্ষণ পর বাইসাইকেল নিয়ে পূণরায় বেড়িয়ে যায়। রাতে তার ঘরে লাশ ঝুলতে দেখে পুলিশে খবর দেই। পরে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে। জিয়ারুল আত্মহত্যা করেছে। তার স্ত্রীর সঙ্গে ঝগড়ার জের ধরে এমন ঘটনা ঘটাতে পারে বলে আমার ধারণা। ”

ডিমলা থানার উপ-পরিদর্শক শাহাবুদ্দিন আহমেদ বলেন, “গত বুধবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে নিজ বাড়ির আঙ্গিনা থেকে জিয়ারুলের লাশ উদ্ধার করা হয়। ঘটনাটি রহস্যজনক হওয়ায় পুলিশের পক্ষে একটি সাধারণ ডায়েরী করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে নীলফামারী আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে লাশের ময়না তদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। এ ঘটনায় জিয়ারুলের স্ত্রী থানায় হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন। ”

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবু মারুফ হোসেন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে বলেন, “বিভিন্নজন বিভিন্ন কথা বলছেন। ময়না তদন্তের প্রতিবেদন পেলে এটি হত্যা না আত্মহত্যা সে বিষয়ে পরিস্কার হওয়া যাবে। ”


মন্তব্য