kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


একটি মেমরি কার্ডের জন্য যুবককে পিটিয়ে হত্যা!

নিজস্ব প্রতিবেদক, কুমিল্লা   

২০ অক্টোবর, ২০১৬ ১৮:১৫



একটি মেমরি কার্ডের জন্য যুবককে পিটিয়ে হত্যা!

তুচ্ছ ঘটনার জের ধরে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে সোহাগ নামের এক যুবককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে। বৃহস্পতিবার ভোর রাতে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

নিহত সোহাগ উপজেলার ঘোলপাশা ইউনিয়নের রাজেন্দ্রপুর গ্রামের মৃত আবদুল করিমের পুত্র।

জানা যায়, উপজেলার ঘোলপাশা ইউনিয়নের রাজেন্দ্রপুর গ্রামের নিহত মো: সোহাগ (৩৫) এর ব্যবহৃত একটি মেমোরি কার্ড পাশ্ববর্তী বাড়ির মৃত মোক্তার হোসেনের পুত্র মীর হোসেন(২৫) নিয়ে যায়। এদিকে কিছুদিন পূর্বে সোহাগ তার মেমোরি কার্ডটি মীর হোসেনের কাছ থেকে ফেরত চাওয়ায় তাদের মধ্যে বাকবিতন্ডা হয়। এর জের ধরে গত শনিবার (১৫ অক্টোবর) বিকেলে দিনমজুরি শেষে বাড়ি ফেরার পথে মীর হোসেন সোহাগের মাথার পিছনে লাঠি দিয়ে সজোরে আঘাত করে।

এসময় স্থানীয়রা এগিয়ে এলে মীর হোসেন লাঠি নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে তারা গুরুতর আহত সোহাগকে উদ্ধার শেষে চৌদ্দগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়। অবস্থার অবনতি হলে তাকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার ভোররাতে সোহাগের মৃত্যু হয়। এঘটনায় সোহাগের চাচা আবদুল খালেক বাদি হয়ে মীর হোসেনের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

এ ব্যাপারে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যাওয়া চৌদ্দগ্রাম থানার ওসি আবুল ফয়সল জানান, হত্যার ঘটনা শোনার সাথেই মামলা নেয়া হয়েছে। আসামীকে গ্রেফতারের প্রক্রিয়া চলছে।


মন্তব্য