kalerkantho

শুক্রবার । ২ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ধামরাই ও আশুলিয়ায় দুটি মরদেহ উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক, সাভার (ঢাকা)   

১৯ অক্টোবর, ২০১৬ ১৮:৪১



ধামরাই ও আশুলিয়ায় দুটি মরদেহ উদ্ধার

ধামরাই ও আশুলিয়া থেকে ১২ ঘণ্টার ব্যবধানে একজন শ্রমিক ও অপর একজন প্রতিবন্ধী শিশুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। আজ বুধবার সকাল সাড়ে ৯টায় ধামরাইয়ের কালামপুর বাজার এলাকার একটি কলা বাগান থেকে ইউনুস (৫৫) নামে এক শ্রমিকের মরদেহ উদ্ধার করে ধামরাই থানা পুলিশ।

এছাড়া গতকাল মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে আশুলিয়ার জামগড়া এলাকায় ময়না (১২) নামের এক প্রতিবন্ধী শিশুর মরদেহ উদ্ধার করে আশুলিয়া থানা পুলিশ।

ধামরাই থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) দীপকচন্দ্র সাহা জানান, স্থানীয়দের কাছে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। নিহত ব্যক্তির মাথায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে এবং নাক-মুখ দিয়ে রক্ত ঝরছিল। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পেলে তার মৃত্যুর কারণ জানা যাবে।  

তিনি আরো জানান, নিহত ইউনুস কুস্টিয়া জেলার সদর থানার কমলাপুর গ্রামের আবদুস সাত্তার সরদারের ছেলে। তার দুই স্ত্রী ও পাঁচ সন্তান রয়েছেন। ধামরাইয়ের কালামপুর গ্রামের শফিকের বাড়ির ভাড়াটিয়া ইউনুস মিয়া স্থানীয় বিলট্রেড ইঞ্জিনিয়ারিং লিমিটেড কারখানার ওয়েলডিং সেকশনের মিস্ত্রি ছিলেন।

নিহতের ছেলে সোহেল রানা জানান, মঙ্গলবার সন্ধ্যার পর বাসা থেকে বের হয়ে তার বাবা আর বাসায় ফেরেননি। বুধবার সকালে পথচারীরা কালামপুর বাজার এলাকায় কলাবাগানে তার মরদেহ দেখতে পায়।
 
এদিকে গতকাল মঙ্গলবার রাত ৯টার আশুলিয়ার জামগড়া এলাকার আব্বাসি মার্কেটের পিছনে আলী মিয়ার ভাড়া দেওয়া বাড়ির একটি কক্ষ থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় ময়না নামের একটি শিশুর মৃতদেহ উদ্ধার করে আশুলিয়া থানা পুলিশ।

এ বিষয়ে আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক মোরশেদ আলী মেল্লা জানান, মঙ্গলবার রাতে স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে আলী মিয়ার বাসার একটি কক্ষের দরজা ভেঙে ১২ বছরের শিশু ময়নার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়। পরে মরদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। প্রাথমিকভাবে এটা আত্মহত্যা মনে হচ্ছে বলে জানান তিনি। তবে আত্মহত্যার কারণটি উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।  

তিনি আরো জানান, ময়না বুদ্ধি প্রতিবন্ধী একজন শিশু। সে মঙ্গলবার দুপুর থেকেই কক্ষটি বন্ধ করে ভিতরে অবস্থান করছিল। পরে রাতে দরজা না খুললে প্রতিবেশীদের সন্দেহ হয়। এ সময় আশুলিয়া থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে মরদেহটি উদ্ধার করে। নিহত ময়না ময়মনসিংহ জেলার হালুয়াঘাট থানার মাইঝাল গ্রামের কুদ্দুস মিয়ার মেয়ে।


মন্তব্য