kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ঝিনাইগাতীতে গারো যুবকসহ আটক সাতজনের বিরুদ্ধে মামলা

শেরপুর প্রতিনিধি   

১৭ অক্টোবর, ২০১৬ ১৮:৪৬



ঝিনাইগাতীতে গারো যুবকসহ আটক সাতজনের বিরুদ্ধে মামলা

শেরপুরের ঝিনাইগাতী সীমান্তের গজনী এলাকা থেকে অস্ত্র ও গুলিসহ ৩ গারো যুবককে আটক করেছে র‌্যাব। আজ সোমবার দুপুরে আটক ওই তিন যুবকসহ সাতজনের বিরুদ্ধে ঝিনাইগাতী থানায় অস্ত্র আইনে একটি মামলা দায়ের করে জব্দ করা অস্ত্র ও গুলিসহ তাদের পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

র‌্যাব-১৪ (জামালপুর-শেরপুর)-এর ডিএডি হাবিবুর রহমান বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন।  

আটককৃতরা হলো-গজনী গ্রামের মধু মারাকের ছেলে পিতর শাংমা (২৫), মতেন্দ্র শাংমার পুত্র বিপ্লব শাংমা ওরফে বেল্ল (২৮) ও গাবরিয়াল সাংমার পুত্র বেপিশ মারাক (২৬)। গতকাল রবিবার র‌্যাবের বিশেষ অভিযানে তারা ধরা পড়ে। এ ছাড়াও মামলায় অপর চার আসামি হলেন-একই এলাকার টিপসন মারাক (৫০), কর্ণলিও মারাকের পুত্র কৃষ্ণ মারাক (২৮), নিউটন সাংমার ছেলে মিথুন মারাক (২০) ও লিও মারাকের পুত্র সার্সিং সাংমা (২১)।  

র‌্যাবের দায়ের করা অভিযোগ ও মামলা রেকর্ডের সত্যতা স্বীকার করে ঝিনাইগাতী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান জানান, রবিবার গ্রেপ্তার হওয়া ৩ গারো যুবকসহ ৭ জনকে আসামি করা হয়েছে। আগামীকাল মঙ্গলবার তাদের ৫ দিনের রিমান্ড আবেদনসহ বিচারিক আদালতে সোপর্দ করা হবে। এছাড়া পলাতকদের গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান চলবে।

উল্লেখ্য, গতকাল রবিবার ভোর থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত র‌্যাব-১৪ ব্যাটালিয়ন অধিনায়ক লে. কর্নেল মো. শরিফুল ইসলামের নেতৃত্বে সিপিসি-১, সিপিসি-২, সিপিসি-৩, স্পেশাল কম্পানি ও হেডকোয়ার্টার্স কম্পানির যৌথ আভিযানিক দল ঝিনাইগাতী সীমান্তের পাহাড়ি জনপদ বড়গজনী এলাকার মধু সাংমার বাড়িতে অভিযান চালায়। সে সময় তারা মধু সাংমার পুত্র পিতর, প্রতিবেশী বেল্লব ওরফে বিপ্লব ও বিথিশকে আটক করে। তাদের হেফাজতে থাকা ২টি বিদেশি ৯ এমএম পিস্তল এবং ১৫ রাউন্ড গুলি, ৪টি ম্যাগজিন, একটি বড় চাকু, ৪টি কমব্যাট প্রিন্টের বান্ডুলিয়ারসহ ৮টি মোবাইল উদ্ধার করে। অভিযানকালে আরও চারজন র‌্যাবের অবস্থান টের পেয়ে পালিয়ে যায় বলে র‌্যাবের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়।


মন্তব্য