kalerkantho


ডোমারে প্রধানমন্ত্রীর ছবি টাঙিয়ে দখলবাজি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ অক্টোবর, ২০১৬ ১৭:৪৫



ডোমারে প্রধানমন্ত্রীর ছবি টাঙিয়ে দখলবাজি

নীলফামারীর ডোমারে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি টাঙিয়ে দলীয় অফিসের নামে দখলবাজির অভিযোগ উঠেছে সরকারদলীয় স্থানীয় কয়েকজন নেতার বিরুদ্ধে। এতে জেলা পরিষদ ও বাংলাদেশ জুট করপোরেশনের কোটি টাকার সম্পত্তি বেহাতসহ পৌরসভার অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান মুখ থুবড়ে পড়ার আশঙ্কা করছে এলাকাবাসী।

গতকাল  ররিবার রাত থেকে আজ সোমবার ভোররাত পর্যন্ত চলে এ দখল অভিযান।

জানা গেছে, ডোমারবাসীকে যানযটের কবল থেকে মুক্তি দিতে উপজেলা প্রসাশন ও  পৌরসভা রাস্তার দুইপাশের সব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ কার্যক্রম শুরু করে চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহে। এর মধ্যে সড়কের দুই পাশের অনেক অবৈধ স্থাপনা দখলমুক্তও করা হয়। এ সুযোগে সাবেক কাউন্সিলর ও ডোমার পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ময়নুল হক মনুর নেতৃত্বে গত ১৬ সেপ্টেম্বর রবিবার গভীর রাতে তার দলবল নিয়ে জেলা পরিষদ ও বাংলাদেশ জুট করপোরেশনের অনেক খালি জমি দখল করে সেখানে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ডোমার উপজেলা যুবলীগ ও পৌর আওয়ামী লীগের কার্যলয়ের সাইনবোর্ডসহ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি টাঙিয়ে দেন। পৌর মেয়র আলহাজ্ব মনছুরুল ইসলাম দানুসহ কাউন্সিলররা ঘটনাস্থলে গিয়ে স্থাপনা নির্মাণে বাধা দিলেও তাদের দখল উৎসব চালিয়ে যায়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় আওয়ামী লীগের একাধিক নেতাকর্মী প্রতিবেদককে জানান, বঙ্গবন্ধু পরিবারের ছবিকে পুজি করে এ ধরনের দখলবাজি কর্মকাণ্ড দল থেকে কঠিনভাবে নিষেধ করা থাকলেও তারা কোন খুঁটির জোরে তা করছে- এটা তাঁদের বোধগম্য নয়।
উচ্ছেদ হওয়া ব্যবসায়ী বিআরটিসির কাউন্টার ম্যানেজার রনি চৌধুরী বলেন, "আমরা দীর্ঘদিন ধরে কয়েকজন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী ব্যবসা করে সংসার চালাচ্ছি। হঠাৎ করে ১২ দিন আগে প্রশাসন আমাদের উচ্ছেদ করেছে। এখন দেখছি গতকাল রবিবার রাতে পৌরসভা আওয়ামী লীগের নামে জায়গা দখল করেছে।

"

ডোমার পৌরসভার মেয়র মুনছুরুল ইসলাম দানু জানান, তারা রাতারাতি দখল করছে। এর প্রয়োজনীয় ব্যস্থা নেওয়া হবে। এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাবিহা সুলতানা জানান, দখলের বিষয়টি জেনেছি। প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


মন্তব্য