kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


কেরানীগঞ্জে গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি    

১৭ অক্টোবর, ২০১৬ ১৪:১১



কেরানীগঞ্জে গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

ঢাকার কেরানীগঞ্জ মডেল থানাধীন মান্দাইল খলিফা পাড়া এলাকা থেকে শিউলি বেগম (৪০) নামে এক গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ সোমবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে স্বামীর বাড়ির নিজ ঘর থেকে জানালার সঙ্গে ওড়না দিয়ে ফাঁস দেওয়া লাশটি উদ্ধার করা হয়।

এদিকে, নিহতের ভাই মো. মতিউর রহমান অভিযোগ করে বলেন, "বিয়ের পর থেকেই আমার বোনের সংসারে অভাব-অনটন চলছিল। এ জন্য আমার বোন শিউলি সংসারের অভাব-অনটন ঘুছাতে সুদুর ওমান গিয়েছিল। সেখানে দুই মাস পর শরীরে রোগ ধরা পড়লে সে দেশে চলে আসে। তাদের সংসারে অভাব-অনটন থেকেই যায়। এ নিয়ে গত কয়েক দিন শাশুড়ি শেফালী বেগম ও জা রিন্দা বেগম স্বামী নজরুলের সঙ্গে ঝগড়া-বিবাদ-মারামারি চলছিল। " তিনি বলেন, "আজ সোমবার সকালে আমার ভাগ্নে তানভির ফোন করে জানায়, তার মা শিউলি বেগম গলায় ফাঁস দিয়েছে। " তিনি আরো বলেন, "শিউলি গলায় ফাঁস দেয়নি। তাকে খুন করে আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দেওয়ার জন্য গলায় ফাঁস লাগানো হয়েছে। এর আগেও তাদের বাড়ির আরেক ছেলে বাবুর স্ত্রীকেও খুন করে তারা একইভাবে আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দিয়েছে। আমি এ খুনের বিচার চাই। "

নিহতের দেবর মো. রফিক বলেন, "১৯৯৮ সালে পারিবারিকভাবে আমার ভাই নজরুল ইসলামের সঙ্গে একই থানাধীন দক্ষিণ মুসলিমবাগ এলাকার মোরসালিন মিয়ার মেয়ে শিউলি বেগমের বিয়ে হয়। তাদের দীর্ঘদিনের সংসার জীবনে তানভির (১৬) ও অন্তু (১৩) নামে দুটি ছেলে সন্তান রয়েছে। বিয়ের কয়েক বছর পর থেকে তাদের দুজনের মধ্যে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে ঝগড়াঝাটি লেগেই থাকতো। পারিবারিক কলহের জের ধরেই স্বামীর সঙ্গে রাগ করে তিনি গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন বলে আমরা ধারণা করছি। "

কেরানীগঞ্জ মডেল থানার এসআই আমিনুল ইসলাম বলেন, "খবর পেয়ে আমরা নিহতের বাড়িতে গিয়ে নিজ ঘরের জানালার সঙ্গে ওড়না দিয়ে ফাঁস দেওয়া অবস্থায় লাশ উদ্ধার করি। লাশের তলপেটে কালো দাগের চিহ্ন রয়েছে। " তিনি আরো বলেন, "ময়নাতদন্ত  প্রতিবেদন আসলে বলা যাবে এটি হত্যা নাকি আত্মহত্যা। এ ঘটনায় কেরানীগঞ্জ মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। " লাশ ময়নতদন্তের জন্য স্যার সলিমুল্লাহ মেডিক্যাল কলেজ মিটফোর্ড হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে বলে জানান তিনি।


মন্তব্য