kalerkantho

রবিবার। ৪ ডিসেম্বর ২০১৬। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


কর্মচারী নিখোঁজের বক্তব্য চাওয়ায় সাংবাদিককে প্রাণনাশের হুমকি!

জামালপুর প্রতিনিধি    

১৫ অক্টোবর, ২০১৬ ২১:১৯



কর্মচারী নিখোঁজের বক্তব্য চাওয়ায় সাংবাদিককে প্রাণনাশের হুমকি!

কর্মচারী নিখোঁজের ঘটনায় মালিকের বক্তব্য চাওয়ায় ভোরের কাগজের প্রতিবেদক ও ইন্ডিপেনডেন্ট টিভির জেলা প্রতিনিধি দুলাল হোসাইনকে প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছেন জামালপুর শহরের রূপালী মটরর্সের মালিক গোলাম রব্বানী। দাদন ব্যবসায়ী ও বিত্তবান রব্বানীর হুমকির ঘটনায় নিজের ও পরিবারের নিরাপত্তার জন্য সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন তিনি।

সাধারণ ডায়েরিতে সাংবাদিক দুলাল হোসাইন উল্লেখ করেছেন, রূপারী মটর্সের ম্যানেজার মোঃ লালন শাহ তার কর্মস্থল থেকে ৬ দিন যাবৎ নিখোঁজ রয়েছে বলে তার স্ত্রী বিলকিস আক্তার বেলী জামালপুর সদর থানায় সাধারণ ডায়েরি করতে যান। পুলিশ অভিযোগটি না নেওয়ায় তিনি সাংবাদিকের কাছে অভিযোগ করেন। অপরদিকে রূপালী মটরর্সের মালিক গোলাম রব্বানী তার ম্যানেজার মোঃ লালন শাহ এর বিরুদ্ধে পেনাল কোডে ৪০৮ ধারায় একটি মামলা দায়ের করেন। পাল্টাপাল্টি অভিযোগের বিষয়ে তিনি(দুলাল হোসাইন) মোবাইল ফোনে গোলাম রব্বানীর কাছে বিষয়টি জানতে চাইলে প্রথমে তাকে দুপুরের পর চেম্বারে আসতে বলেন। এর ১ ঘণ্টা পর গোলাম রব্বানী তার মোবাইল ফোনে তাকে অকথ্য ভাষায় গালাগালাজ করেন। এক পর্যায়ে কোন পত্রিকায় খবর ছাপা হলে তাকে দেখে নেওয়ার পাশাপাশি প্রাণনাশেরও হুমকি দেন। এই ঘটনায় আজ শনিবার নিজের ও পরিবারের নিরাপত্তার জন্য তিনি জামালপুর সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন। যার নম্বর ৭৭১, তাং ১৫.১০.২০১৬।  

অপরদিকে রূপালী মটর্সের ম্যানেজার মোঃ লালন শাহ এর স্ত্রী জানান, রূপালী মটরর্সের দায়িত্ব পালনের এক পর্যায়ে গত ৮ অক্টোরর রাত সাড়ে ১০টার পর থেকে নিখোঁজ হন তার স্বামী মোঃ লালন শাহ।  এরপর অনেক খুঁজাখুজি করেও লালন শাহ’র কোন সন্ধান না পেয়ে তিনি সদর থানায় জিডি করতে গেলে পুলিশ জিডি নেয়নি।  

তিনি আরও জানান, রূপালী মটরর্সের মালিক গোলাম রব্বানী তার স্বামীর বিরুদ্ধে পেনাল কোডে ৪০৮ ধারায় ১৫ লাখ টাকা চুরির অভিযোগে একটি মিথ্যা মামলা দায়ের করেছেন।  

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মোঃ লালন শাহ  নিখোঁজ রয়েছেন বলেও জানান তার স্ত্রী।

এদিকে রূপালী মটরর্সের মালিক গোলাম রব্বানী বলেন, “আমি কোন সাংবাদিককে কোন প্রকার হুমকি প্রদান করি নাই। তবে আমার দোকানের ম্যানেজার মোঃ লালন শাহ দোকান থেকে প্রায় ২৫ লাখ টাকা চুরি করে নিয়ে যাওয়ায় আমি আদালতে মামলা করেছি। ওই মামলা ভিন্ন খাতে নিতে ম্যানেজার লালন ও তার স্ত্রী নানা ষড়যন্ত্র করছে। ”

এ ব্যাপারে জামালপুর সদর থানার অফিসার ইনচাজ নাসিমুল ইসলাম জানান, মোঃ লালন শাহ এর সন্ধানের জন্য চেষ্টা চালানো হচ্ছে। তাকে পাওয়া গেলে আসল রহস্য উদঘাটন হবে।


মন্তব্য