kalerkantho

রবিবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


বন্দরে ছুরিকাঘাতে আহত ব্যবসায়ীর মৃত্যু

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি   

১৪ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:৫৮



বন্দরে ছুরিকাঘাতে আহত ব্যবসায়ীর মৃত্যু

বন্দরে ছুরিকাঘাতে আহত ব্যবসায়ী রিপন এক সপ্তাহ মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে মারা গেছে। আজ শুক্রবার সন্ধ্যায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

এ ঘটনার পর পর পুলিশ হুমায়ুন নামের এক সন্ত্রাসীকে গ্রেপ্তার করেছে।  

নিহত রিপন মদনপুর ফুলহর গ্রামের মৃত আব্দুল মান্নান মিয়ার ছেলে।  

এলাকাবাসী জানান, গত ৮ অক্টোবর রাত ৯টার দিকে ইস্পাহানী এলাকায় অবস্থিত রূপায়ন হাউজিং লিমিটেড এর ঠিকাদারী ব্যবসার কাজ শেষে রিপন বাড়ি ফেরার পথে ইস্পাহানী বাজার মসজিদের সামনে পৌছালে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ওত পেতে থাকা সোনাচরা এলাকার আব্দুল খালেক মিয়ার ছেলে সন্ত্রাসী হুমায়ুনসহ ৩-৪ সন্ত্রাসী ধারালো ছুরি দিয়ে তাকে এলোপাথারি ভাবে ছুরিকাঘাত করে রাস্তায় ফেলে দেয়। পরে এলাকাবাসী তাকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে এক সপ্তাহ মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে আজ শুক্রবার সন্ধ্যায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় সে।  এ ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত সম্ভাব্য রাস্তা ব্যারিকেড দিয়ে সন্ত্রাসী হুমায়ুনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে হাজির করে।

রিপনের মৃত্যুর খবর পেয়ে বন্দর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এমএ রশিদ ও বন্দর থানার ওসি আবুল কালাম ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা তার বাড়িতে ছুটে আসেন।

এ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বন্দর থানার অফিসার (ওসি) আবুল কালাম বলেন, ছুরিকাঘাতের ঘটনার পরপর সন্ত্রাসী হুমায়ুনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। এ ঘটনার জড়িতদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।


মন্তব্য