kalerkantho

শনিবার । ৩ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ২ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


তদন্তে স্বাস্থ্য বিভাগের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা

পার্বতীপুরে বিসিজি টিকা প্রদানের পর শিশুর মৃত্যু

পার্বতীপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি    

১৪ অক্টোবর, ২০১৬ ১৮:২৭



পার্বতীপুরে বিসিজি টিকা প্রদানের পর শিশুর মৃত্যু

দিনাজপুরের পার্বতীপুর উপজেলার মধ্যপাড়া খনি এলাকায় এক ইউপি সদস্যের ৪২ দিন বয়সী শিশুপুত্রকে টিকা প্রদানের পর মৃত্যু হয়েছে ওই শিশুটির। এতে তোলপাড় শুরু হয়েছে এলাকায়।

এ ঘটনায় সাত সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। ইতিমধ্যে তদন্তদল মাঠে নেমেছে এবং আগামী মঙ্গলবারের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়া হবে বলে জানা গেছে।

জানা যায়, উপজেলার হরিরামপুর ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ড সদস্য মমিনুল হকের ৪২ দিন বয়সী শিশুপুত্রকে তার স্ত্রী গত সোমবার মধ্যপাড়া টিকাকেন্দ্রে নিয়ে গেলে ইউনিয়ন স্বাস্থ্য সহকারী মাগদালীনা টপ্পো শিশুটিকে বিসিজি টিকা দেন। এরপরই শিশুটি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়ে। তাৎক্ষণিকভাবে ওই স্বাস্থ্য সহকারীর পরামর্শক্রমে তাকে পার্শ্ববর্তী ফুলবাড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক  শিশুটির কোনো চিকিৎসা সেবা না দিয়েই রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর  করেন। তাকে দ্রুত অ্যাম্বুলেন্সযোগে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক শিশুটিকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ বিষয়ে মৃত শিশুর বাবা মমিনুল হক বলেন, "গত সোমবার টিকা দেওয়ার জন্য আমার স্ত্রী মোসা. পারভীন বেগম শিশুপুত্র আ. রহমানকে টিকাকেন্দ্রে নিয়ে যান। সেখানে স্বাস্থ্য সহকারী মাগদালীনা টপ্পো সঠিক পদ্ধতিতে টিকা দিতে না পারার কারণে এবং ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্তব্যরত চিকিৎসক শিশুটির কোনো চিকিৎসা না দেওয়ায় আমার শিশুপুত্রের মৃত্যু হয়েছে।

এদিকে, ঘটনাটি তদন্তের জন্য ডেপুটি সিভিল সার্জেন ডা. রেজাউল ইসলামকে প্রধান করে সাত সদস্যের একটি তদন্ত দল গঠন করা হয়েছে গত বুধবার। ইতিমধ্যে ডেপুটি সিভিল সার্জেন ডা. রেজাউল ইসলাম, বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার বাংলাদেশ প্রতিনিধি ডা. কামরুজ্জামান, পার্বতীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মকর্তা ডা. নবিউল ইসলাম মাঠে নেমেছেন। আগামী মঙ্গলবারের মধ্যে এ তদন্ত টিমকে প্রতিবেদন জমা দেওয়ার সময়সীমা বেঁধে দেওয়া হয়েছে।

শিশুটির মৃত্যুর ব্যাপারে জানতে চাইলে স্বাস্থ্য সহকারী মাগদালীনা টপ্পো কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি। তিনি বলেন, যেহেতু তদন্ত টিম গঠন করা হয়েছে, তাই তদন্তের  মাধ্যমে সঠিক কারণটি বেরিয়ে আসবে বলে আমি মনে করি। এ ব্যাপারে দিনাজপুর সিভিল সার্জেন ডা. অমলেন্দু বিশ্বাস জানান, সাত সদস্যের তদন্ত টিম গঠন করা হয়েছে। আগামী মঙ্গলবারের মধ্যে প্রতিবেদন জমা হবে। এর পরই শিশুটির মৃত্যুর সঠিক কারণ  বলা যাবে।

 


মন্তব্য