kalerkantho


হতদরিদ্রদের নামের তালিকায় অনিয়মের অভিযোগ

কলমাকান্দায় দুই ডিলারের ডিলারশিপ বাতিল

হাওরাঞ্চল প্রতিনিধি    

১৪ অক্টোবর, ২০১৬ ১৮:১১



কলমাকান্দায় দুই ডিলারের ডিলারশিপ বাতিল

নেত্রকোনার কলমাকান্দায় হতদরিদ্রদের মাঝে ১০ টাকা কেজি দরে চাল বিক্রির তালিকা তৈরিতে অনিয়মের অভিযোগে উপজেলার কৈলাটি ইউনিয়নের দুইজন ডিলারের ডিলারশিপ বাতিল করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার উপজেলা সমন্বয় কমিটির সভায় ওই ইউনিয়নের ডিলার মজিবুর রহমান ও হায়দার আলী খানের ডিলারশিপ বাতিল করা হয়েছে।

জানা গেছে, উপজেলার কৈলাটী ইউনিয়নের ডিলার মজিবুর রহমান ও হায়দার আলীর বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত হতদরিদ্রদের মাঝে ১০ টাকা কেজি দরে চাল বিক্রির জন্য নামের তালিকায় ব্যাপক অনিয়ম হয়েছে মর্মে জেলা প্রশাসক বরাবর গত ১৫ দিন আগে কৈইলাটি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো. জয়নাল আবেদীন এক লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। পরে জেলা প্রশাসক জয়নাল আবেদীনের দায়রকৃত অভিযোগটি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য জেলা খাদ্য কর্মকর্তা, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তাকে নির্দেশ প্রদান করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে তাঁরা বিষয়টি তদন্ত করে অভিযোগের সত্যতা পাওয়ার পর বৃহস্পতিবার উপজেলা সমন্বয় কমিটির সভায় ইউএনও মো. সাইদুজ্জামান ওই দুই ডিলারের ডিলারশিপ বাতিল ঘোষণা দেন।  

অভিযুক্ত ডিলার হায়দার আলী খান তাঁর বিরুদ্ধে দায়েরকৃত অভিযোগটি অস্বীকার করে বলেন, "এলাকার হতদরিদ্রদের তালিকা তৈরি করেছেন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও মেম্বাররা। এতে আমার কোনো হাত ছিল না। আমার দায়িত্ব ছিল তালিকা অনুযায়ী চাল বিক্রি করা। " তিনি উল্টো ইউএনও'র বিরুদ্ধে তাঁর কাছে ঘুষ চাওয়ার অভিযোগ এনে বলেন, "আমাকে ডিলারশিপ দেওয়ার সময় ইউএনও স্যার আমার কাছে এক লাখ টাকা চেয়েছিলেন। আমি তাঁর কথামতো তাঁকে এক লাখ টাকা না দেওয়ায় তিনি আমার প্রতি ক্ষিপ্ত হয়ে কোনো কারণ দর্শনো নোটিশ ছাড়াই ডিলারশিপ বাতিল করেছেন। " তিনি বলেন, "যারা তালিকা তৈরি করেছেন তাদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা না নিয়ে আমাদের ডিলাশিপ বাতিল করা ঠিক হয়নি। "
 
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. সাইদুজ্জামান ডিলারের ডিলারশিপ বাতিলের সত্যতা স্বীকার করে কালের কন্ঠকে জানান, তদন্তে ওই দুই ডিলারের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় তাদের ডিলারশিপ বাতিল করা হয়েছে।

 


মন্তব্য