kalerkantho

মঙ্গলবার। ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ । ৯ ফাল্গুন ১৪২৩। ২৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৮।


স্বামী পলাতক

আশুলিয়ায় নারী পোশাক শ্রমিককে গলা কেটে হত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক, সাভার (ঢাকা)    

১৪ অক্টোবর, ২০১৬ ১৭:২২



আশুলিয়ায় নারী পোশাক শ্রমিককে গলা কেটে হত্যা

ঢাকার অদূরে আশুলিয়ার বাইপাইল এলাকার একটি বাসা থেকে ফাহিমা বেগম (২৬) নামে এক নারী পোশাক শ্রমিকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ঘটনার পর থেকে নিহতের স্বামী মজনু মিয়া পলাতক রয়েছেন। আজ শুক্রবার সকালে বাইপাইল পশ্চিম পাড়া দরগারগেট এলাকার মনির হোসেনের ভাড়া দেওয়া বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ফাহিমা বেগমের গ্রামের বাড়ি জামালপুর জেলার মাদারগঞ্জ থানা এলাকায়। তারা স্বামী-স্ত্রী দুইজনই আশুলিয়ার বেরণ এলাকার ফাউন্টেন নামের একটি পোশাক কারখানায় কর্মরত ছিলেন।  

পুলিশ জানায়, ফাহিমা ও তার স্বামী মজনু মিয়া গত এক মাস ধরে ওই বাড়ির একটি কক্ষ ভাড়া নিয়ে বসবাস করতেন। আজ শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে ফাহিমার কোনো  সাড়া শব্দ না পেয়ে প্রতিবেশীরা তার কক্ষের কাছে গিয়ে কক্ষটি বাইরে থেকে আটকা  অবস্থায় দেখতে পান। পরে দরজা খুলে বিছানার ওপর রক্তাক্ত অবস্থায় ফাহিমার গলাকাটা লাশ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেয়। যে বটি দিয়ে তাকে জবাই করা হয়েছে সে বটিটি লাশের পাশেই পড়ে ছিল। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে। পরে ময়নাতদন্তের জন্য তা ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়।

আশুলিয়া থানার ওসি মহাসিনুল কাদির বলেন, "প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে পারিবারিক কলহের জের ধরে গলা কেটে ওই নারী পোশাক শ্রমিককে হত্যা করেছে তারই স্বামী। পলাতক স্বামীকে আটকের চেষ্টা চলছে। এ ঘটনায় নিহতের মা বাদী হযে আশুলিয়া থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। "  

 


মন্তব্য