kalerkantho


জয়পুরহাটে স্ত্রীকে হত্যার পর স্বামীর আত্মহত্যা

জয়পুরহাট প্রতিনিধি   

১৪ অক্টোবর, ২০১৬ ১৩:৪৪



জয়পুরহাটে স্ত্রীকে হত্যার পর স্বামীর আত্মহত্যা

জয়পুরহাটের সদর উপজেলার হাঁটুভাঙা গ্রামে পরকীয়ার অভিযোগে স্ত্রী নাসিমা আখতারকে গত রাতের কোনো এক সময়ে শ্বাসরোধ করে  হত্যার পর স্বামী আব্দুল হামিদ গলায় দড়ি দিয়ে নিজেও আত্মহত্যা করেছে। আজ শুক্রবার ভোরে ঘরে ঢুকে বাবা মা’র মরদেহ দেখে ছেলের চিৎকারে বিষয়টি জানাজানি হয়। পরে পুলিশ এসে তাদের শয়ন কক্ষ থেকে মরদেহ উদ্ধার করে।

পরিবার এলাকাবাসী ও পুলিশ সুত্রে জানা গেছে, জয়পুরহাট সদরের আমদই ইউনিয়নের হাঁটুভাঙা গ্রামে পূর্ব কলহের জের ধরে বৃহস্পতিবার রাতের কোনো এক সময়ে স্বামী আব্দুল হামিদ স্ত্রী নাসিমার গলায় ওড়না পেঁচিয়ে তাকে শ্বাসরোধ করে  হত্যা করে। পরে ঘরের বর্গার সাথে গলায় দড়ি দিয়ে আব্দুল হামিদও আত্মহত্যা করে। সকাল ৬টার দিকে নিহত আব্দুল হামিদের ৮ম শ্রেণীতে পড়ুয়া ছেলে রাকিব শয়ন কক্ষে ঢুকে বাবা-মা’র মরদেহ দেখে চিৎকার করলে বিষয়টি জানাজানি হয়। স্থানীয় ইউপি সদস্যের মাধ্যমে ঘটনাটি জানার পর জয়পুরহাট থানা পুলিশ ঘটনা স্থল থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য জেলা হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়ে দেন।

জয়পুরহাট সহকারী পুলিশ সুপার (সার্কেল) অশোক কুমার পাল জানান, নিহতদের বিষয়ে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে,পরকিয়ার জের ধরে স্ত্রীকে হত্যার পর স্বামী আত্মহত্যা করেছে। তবে তদন্ত ছাড়া বিষয়টি পুরোপুরি নিশ্চিত হওয়া সম্ভব নয়। এ ব্যাপারে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।


মন্তব্য