kalerkantho

রবিবার। ৪ ডিসেম্বর ২০১৬। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


কেরানীগঞ্জে যুবলীগকর্মী হত্যা, আটক ২

কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি   

১৩ অক্টোবর, ২০১৬ ১৮:৩৭



কেরানীগঞ্জে যুবলীগকর্মী হত্যা, আটক ২

কেরানীগঞ্জে এক যুবলীগকর্মীকে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। নিহত মাসুদ রানা (৩৮) মডেল থানার কলাতিয়া ইউনিয়নের বেলনা বাবুরকান্দি গ্রামের বাসিন্দা।

কেরানীগঞ্জ মডেল থানা পুলিশ আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টায় নিহতের ভাসমান লাশ কালীগঙ্গা নদীর খাড়াকন্দি ছানার ঘাট এলাকা থেকে উদ্ধার করে। পরে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ মিটফোর্ড হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করা হয়।

এ ঘটনায় পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহতের বন্ধু পান্নু মিয়া (৩৫) ও কাইয়ুম (৩৮) নামে দুই যুবককে আটক করেছে।

নিহতের পিতা আঃ কুদ্দুস কাঁদতে কাঁদতে বলেন, আমার ছেলে মাসুদ যুবলীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত ছিলো। সে একটি হাউজিং কোম্পানিতে চাকুরি করতো। গত মঙ্গলবার রাত ৯টায় তার বন্ধু পান্নু বাসা থেকে ডেকে নিয়ে যায়। এরপর থেকে সে নিখোঁজ থাকে। আজ বৃহস্পতিবার সকালে লোকমুখে শুনতে পাই খাড়াকান্দী ছানার ঘাট এলাকায় কালিগঙ্গা নদীতে এক যুবকের লাশ ভাসছে। খবর পেয়ে স্বজনদের নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখি লাশটি আমার ছেলে মাসুদের।

তিনি আরও বলেন, আমার ছেলেকে পান্নু গংরা পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে লাশ গুম করার জন্য নদীতে ফেলে দেয়। আমি এ হত্যাকান্ডের বিচার চাই।

কেরানীগঞ্জ মডেল থানা যুবলীগের আহ্বায়ক মনির হোসেন মনির ওরফে ভিপি মনির বলেন, মাসুদ দীর্ঘদিন থানা যুবলীগের সাথে জড়িত ছিলো। আমি এ ন্যাক্কার জনক ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই এবং জড়িতদের অবিলম্বে গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবী করছি।

কলাতিয়া পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক মোঃ মনির হোসেন বলেন, সকালে লোকমুখে সংবাদ পাই কালিগঙ্গা নদীতে অজ্ঞাত যুবকের লাশ ভাসছে। এ সংবাদের ভিত্তিতে ঘটনাস্থলে গিয়ে যুবকের লাশ উদ্ধার করি। পরে নিহতের পিতা ও স্বজনরা ঘটনাস্থলে এসে মাসুদের লাশ শনাক্ত করে। নিহতের দুই চোখে জখম রয়েছে।

কেরানীগঞ্জ মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আনসারি জিন্নৎ আলী বলেন, ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন আসলে বলা যাবে এটি হত্যা না দুর্ঘটনা। তবে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ২ যুবককে আটক করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা নৌকাডুবির ঘটনা ঘটেছে বলে জানায়।

এ ঘটনায় নিহতের বাবা আঃ কুদ্দুস  বাদী হয়ে কেরানীগঞ্জ মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।


মন্তব্য