kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


নিষেধাজ্ঞা অমান্য

লক্ষ্মীপুরে মৎস্যজীবী সমিতির নেতাসহ ১০ জেলের কারাদণ্ড

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি    

১২ অক্টোবর, ২০১৬ ১৬:১১



লক্ষ্মীপুরে মৎস্যজীবী সমিতির নেতাসহ ১০ জেলের কারাদণ্ড

লক্ষ্মীপুরে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মেঘনা নদীতে মাছ শিকারের দায়ে মৎস্যজীবী সমিতির এক নেতাসহ ১০ জেলেকে আটক করা হয়েছে। পরে তাদের প্রত্যেককে দুই বছর করে কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

আজ বুধবার দুপুরে এ দণ্ড দেন সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ নুরুজ্জামান।

এর আগে সকাল থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত লক্ষ্মীপুরের মেঘনা নদীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক করা হয়। এ ছাড়া পাঁচ হাজার মিটার জাল এবং একটি ইঞ্জিনচালিত ট্রলার জব্দ করে উপজেলা প্রশাসন।

উপজেলা প্রশাসন জানায়, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ নুরুজ্জামানের নেতৃত্বে সকাল ৮টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত মেঘনা নদীর মজুচৌধুরীর হাট, মতিরহাট, বুড়িরহাট এলাকায় ইলিশ শিকারের সময় জেলে সমিতির এক নেতা ও ৯ জেলেকে আটক করা হয়। এ সময় একটি ইঞ্জিনচালিত নৌকা এবং প্রায় পাঁচ লাখ টাকার জাল জব্দ করা হয়। পরে তাদেরকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করা হলে এ সাজা দেওয়া হয়। পরে জব্দকৃত জাল আগুনে পুড়িয়ে ধ্বংস ও জব্দকৃত প্রায় এক মণ ইলিশ এতিমখানায় বিতরণ করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা মৎস্য কর্মকর্তা এস এম মহিব উল্লাহ ও সদর উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা আবুল কাশেম প্রমুখ।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন কমলনগর উপজেলার কালকিনি ইউনিয়ন মৎস্য সমিতির সভাপতি মো. আলাউদ্দিন, চর সামছুদ্দিন গ্রামের মৃত আলতাফ হোসেনের ছেলে আবু তাহের, চর কালকিনি গ্রামের লাল মিয়ার ছেলে মহিউদ্দিন, সদর উপজেলার মধ্য চরচরমনী গ্রামের মৃত ইব্রাহিম খলিলের ছেলে আলাউদ্দিন, নোয়াখালীর পূর্ব মাছছড়া গ্রামের রুস্তম আলীর ছেলে মো. মোস্তফা, সৈয়দ আহম্মদের ছেলে হোসেন আহম্মদ, মৃত রুহুল আমিনের ছেলে মো. সিরাজ, শাহাদাত হোসেনের ছেলে মো. শাহাজাহান, শাহজাহানের ছেলে মনির হোসেন এবং ইদ্রিস মিয়ার ছেলে মো. আলাউদ্দিন।

উল্লেখ্য, আজ ১২ অক্টোবর থেকে ২ নভেম্বর পর্যন্ত চাঁদপুরের ষাটনল থেকে লক্ষ্মীপুরের রামগতির মেঘনা নদী পর্যন্ত ১০০ কিলোমিটার এলাকায় ইলিশের প্রজননক্ষেত্রে সব ধরনের মাছ শিকারে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে সরকার। এ সময়ে মাছ শিকার, পরিবহন, মজুদ এবং বাজারজাতকরণ অথবা বিক্রি নিষিদ্ধ। এ আইন আমান্য করলে এক বছর থেকে দুই বছরের জেল অথবা জরিমানা এবং উভয় দণ্ডের বিধান রয়েছে। এ সময় লক্ষ্মীপুরের ৩৭ হাজার ৩২৬ জন জেলের প্রত্যেককে ২০ কেজি করে ভিজিএফের চাল সহায়তা দিচ্ছে সরকার।


মন্তব্য