kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


চট্টগ্রামে সন্ধ্যার আগে তাজিয়া মিছিল শেষ করার আহ্বান সিএমপির

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১১ অক্টোবর, ২০১৬ ২১:৪১



চট্টগ্রামে সন্ধ্যার আগে তাজিয়া মিছিল শেষ করার আহ্বান সিএমপির

চট্টগ্রামে পবিত্র আশুরা উপলক্ষে শিয়া সম্প্রদায়ের তাজিয়া মিছিল সন্ধ্যার আগে শেষ করার আহ্বান জানিয়েছে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ (সিএমপি)। মিছিলে কোনও ধরনের সংঘাত এড়াতে এ আহ্বান জানিয়েছে পুলিশ।

সিএমপি সূত্র জানিয়েছে, তাজিয়া মিছিলে যাতে কোনও ধরনের রক্তপাত না ঘটে সে জন্য ছুরি বা ধারালো অস্ত্র বহন বা ব্যবহার নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এছাড়া মিছিলে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা দিতে পুলিশের পক্ষ থেকে বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।

সূত্রটি আরও জানায়, নগরীর বাকালিয়া, সদরহাট, পাঞ্চলাইশ, খুলশি, বায়েজিদ, আকবর শাহ এবং হালিশহর এলাকা থেকে মোট নয়টি মিছিল বের হবে। যার মধ্যে তিনটি মিছিল বের হবে খুলশি এলাকা থেকে।

এ ব্যাপারে সিএমপি’র কমিশনার ইকবাল বাশার বলেছেন, ‘আমরা শিয়া সম্প্রদায়ের নেতাদের সঙ্গে কথা বলেছি এবং মাগরিবের নামাজের আগে মিছিল শেষ করতে তাদের আহ্বান জানিয়েছি। ’

তিনি আরও বলেন, ‘সন্ধ্যা সাড়ে ৫টার পর থেকে পুলিশ রাস্তায় কোনও ধরনের মিছিল বের করতে দেবে না। এছাড়া মিছিলে ছুরি বা ধারালো অস্ত্র বহন করা নিষিদ্ধ করা হয়েছে। ’

সিএমপি কমিশনার বলেন, ‘যদি কেউ লুকিয়ে মিছিলে অস্ত্র বহন করে, তবে তার প্রতি নজর রাখা পুলিশের পক্ষে কঠিন কাজ হয়ে দাঁড়াবে। ’

তিনি আরও বলেন, ‘কোনও অপ্রিতিকর পরিস্থিতি এড়াতে মিছিলে সাদা পোশাকের পুলিশ এবং অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হবে।

যদিও চট্টগ্রামে দৃশ্যমান কোনও হুমকি নেই, তারপরও পুলিশ নগরীর নিরাপত্তার জন্য বিশেষ নিরাপত্তার ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে বলে জানান ইকবাল বাহার।

অপরদিকে শিয়া সম্প্রদায়ের ধর্মীয় নেতা মাওলনা আমজাদ হোসেন বলেছেন, ‘আমরা সিএমপির সব নির্দেশনা মেনে চলবো। এছাড়া তাজিয়া মিছিল সকাল ১০টার মধ্যে শেষ হবে। ’

তিনি আরও বলেন, ‘পুলিশের সঙ্গে আমাদের ব্যক্তিগত নিরাপত্তা বাহিনী এবং স্বেচ্ছাসেবকরা মিছিলের নিরাপত্তায় কাজ করবে। ’

উল্লেখ্য, মহানবী হযরত মোহাম্মদ (স.) এর দৌহিত্র হোসেনের মৃত্যুর স্মরণে প্রতি বছর এই দিনে শিয়া সম্প্রদায় বিশ্বব্যাপী তাজিয়া মিছিল বের করে। মিছিলে অংশগ্রহণকারীরা ছুরি ও ব্লেড দিয়ে নিজের শরীর কেটে ফেলে।

 


মন্তব্য