kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ইলিশ সম্পদ সংরক্ষণে উদ্যোগ

বরিশালে সোয়া ২ লাখ জেলে পরিবার পাবে খাদ্য সহায়তা

পাথরঘাটা (বরগুনা) প্রতিনিধি   

১১ অক্টোবর, ২০১৬ ২০:৩৯



বরিশালে সোয়া ২ লাখ জেলে পরিবার পাবে খাদ্য সহায়তা

দেশের ইলিশ সম্পদ সংরক্ষণে সরকারের প্রতিরোধমূলক কার্যক্রমের আওতায় ইলিশ আহরণে বিরত থাকা জেলেদের জন্য বিশেষ ভিজিএফ খাদ্য সহায়তা ঘোষণা করা হয়েছে। বরিশালের ৬ জেলায় সোয়া ২ লাখ নিবন্ধিত ও দরিদ্র জেলে পরিবার পাবেন এই খাদ্য সহায়তা।

২২ দিন বন্ধ থাকবে ইলিশ আহরণ কার্যক্রম।
 
আগামীকাল ১১ অক্টোবর থেকে ২ নভেম্বর পর্যন্ত মোট ২২ দিনে ইলিশ আহরণে বিরত জেলে শ্রমিকদের মাথা পিছু ২০ কেজি করে ভিজিএফ খাদ্য সহায়তা প্রদান করা হবে বলে জানিয়েছে মৎস্য অধিদপ্তর। এদিকে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রনালয় বরাদ্ধকৃত ওই চাল ইলিশ আহরণ নিষিদ্ধকালে বিতরণ সম্পন্ন না হওয়ার আশঙ্কা।
 
মৎস্য অধিদপ্তরের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তথ্যে জানা যায়, সরকার মোট ১৪ জেলার ৭৬ উপজেলায় বিশেষ খাদ্য সহায়তা প্রদান করবে। ওই সকল উপজেলার ২ লাখ ২৭ হাজার ৯১৩ স্থানীয় ও দুঃস্থ প্রকৃত জেলে পরিবার পাবেন খাদ্য সহায়তা। এজন্য জেলা প্রশাসক বরাবর বরাদ্ধপত্র প্রেরণ করা হয়েছে।
এর মধ্যে ভোলা জেলায় বরাদ্দ হয়েছে ৮৮ হাজার ১১১ পরিবারের জন্য খাদ্য সহায়তা, পটুয়াখালী জেলায় ৪৫ হাজার ৬১২ , বরিশাল ৪৬ হাজার ৬৪৪, বরগুনা ৩৪ হাজার ১১১, পিরোজপুর ১৪ হাজার ৮৭৫ ও ঝালকাঠি জেলায় ১৪৬০ পরিবার।
 
এ ব্যাপারে বরগুনার জেলা মৎস্য কর্মকর্তা ড. মোহাম্মদ ওহাদিজ্জামান বলেন, বরাদ্ধ পাওয়া গেছে কিন্তু তালিকা জমা দিবেন সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানগণ।  

বিভিন্ন উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদে আলাচেনা করে জানা গেছে, এখনো এ সংক্রান্ত কোন চিঠি তারা পাননি।  

এ বিষয়ে পাথরঘাটা উপজেলার নাচনাপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের সচিব মো. আবদুল গনি জানান, তিনি এখনো কোন চিঠি পাননি। তবে সংবাদপত্রে খবরটি জানতে পেরেছে। সুনির্দিষ্ট পত্র পেলে প্রকৃত জেলের তালিকা তৈরি করে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট জমা দেওয়া হবে।  

এ ব্যাপারে পাথরঘাটা উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মো. মুরাদ হোসেন প্রামানিক জানান, চেষ্টা করছি ২ নভেম্বরের আগেই সকল জেলে পরিবারে সরকারের বরাদ্ধকৃত খাদ্য সহায়তা পৌছানো হবে।
 
এদিকে ত্রাণ ও পুর্নবাসন অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে , ইউপি চেয়ারম্যানদের দেওয়া তালিকা পেলে ইউনিয়ন পরিষদের নামে চাল বরাদ্ধ প্রদান করা হবে। তারা জেলেদের মধ্য সরাসরি বিতরণ করবেন।
 


মন্তব্য