kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


পার্বতীপুরে মাদকের রমরমা বাণিজ্য

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১০ অক্টোবর, ২০১৬ ২১:১৪



পার্বতীপুরে মাদকের রমরমা বাণিজ্য

দিনাজপুরের পার্বতীপুরে মাদকের রমরমা বাণিজ্য চলছে। প্রকাশ্যে মাদক ব্যবসা এখন নিয়ন্ত্রণহীন হয়ে পড়েছে।

দিন দিন মাদক সেবনের ভয়াবহতা বাড়ছে এলাকাজুড়ে। প্রশাসনের ধারাবাহিক অভিযান থাকার পরও মাদকের ভিতরে ডুবতে শুরু করেছে এলাকার ছাত্র সমাজ, যুব সমাজ ও তরুণ বয়সের ছেলেরা। এ অবস্থায় গুটি কয়েক মাদক ব্যবসায়ীর কাছে জিম্মি হয়ে পড়েছে পার্বতীপুর উপজেলার ১০টি ইউনিয়নের বাসিন্দারা। মাদক বিরোধী অভিযানে পুলিশের রহস্যজনক অসহায়ত্বের কারণে মাদক বিক্রেতারা এখন আরো বেপোরোয়া হয়ে উঠছে। মাদকের টাকা জোগাড় করতে মাদকসেবিরা নানা রকম অপরাধে জড়িয়ে পড়ছে।

মাদক ব্যবসায়ীরা নিরাপদ রুট হিসেবে ব্যবহার করছে ট্রেন যোগাযোগ। এর মধ্যে এক মাদক সম্রাট হিসেবে চিহ্নিত সাদ্দাম হোসেন। সে পার্বতীপুর রেল স্টেশন সংলগ্ন বাবুপাড়া রেল কলোনির হারিজ আহম্মেদ এর ছেলে। সে দীর্ঘদিন ধরে রেল কলোনিতে মাদক ব্যবসা করে আসছে। গতকাল রবিবার রাতে সৈয়দপুর রেলওয়ে পুলিশের এসআরপির নির্দেশে সৈয়দপুর সার্কেল মোঃ মনিরুল ইসলামের নেতৃত্বে পুলিশ ওই মাদক ব্যবসায়ী সাদ্দাম হোসেনের বাসায় অভিযান চালায়। কিন্তু অভিযানের খবর পূর্বেই ফাঁস হয়ে যাওয়ায় মাদক ব্যবসায়ী সাদ্দাম মাদকসহ বাসা থেকে পালিয়ে যায়। ফলে একটি নিস্ফল অভিযান চালায় সৈয়দপুর রেলওয়ে পুলিশ।

অপরদিকে পার্বতীপুর রেলওয়ের থানার অফিসার্স ইনচার্জ মোঃ গোলাম মোস্তফার নেতৃত্বে একদল পুলিশ গতকাল রবিবার রাত ৯টার দিকে রেলওয়ে পাওয়ার হাউজ কলোনীর বাসিন্দা মাদক ব্যবসায়ী ফেরদৌস কোরায়েশীর বাসা ঘেরাও করে। এ সময় তার বাসা তল্লাশি করে ১৫০ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার করে রেলওয়ে পুলিশ। সে সময় ফেরদৌস পুলিশি গ্রেপ্তার এড়িয়ে পালানোর চেষ্টা করলে পুলিশ ধাওয়া করে তাকে বাসার সামনের রাস্তা থেকে আটক করতে সক্ষম হন। তার বিরুদ্ধে পার্বতীপুর রেলওয়ে থানায় একটি মাদক আইনে মামলা দায়ের করা হয়।

এ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে পার্বতীপুর রেলওয়ে থানার অফিসার্স ইনচার্জ মোঃ গোলাম মোস্তফা বলেন, মাদক ব্যবসায়ী ফেরদৌসকে ১৫০ গ্রাম গাঁজাসহ আটক করা হয়েছে। তাকে মাদক আইনে মামলা দিয়ে দিনাজপুর জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।  

অপর এক প্রশ্নের জবাবে অফিসার্স ইনচার্জ গোলাম মোস্তফা বলেন, বাবাপাড়া রেল কলোনীর মাদক ব্যবসায়ী সাদ্দামের বাসায় এসআরপির নির্দেশে সার্কেলের নেতৃত্বে একটি অভিযান হয়েছে। তবে আমি অভিযানের বিষয়টি জানতাম না। পরে বিষয়টি জানতে পারি।


মন্তব্য