kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


বুড়িচংয়ে অনিয়মের অভিযোগে ইউপি মেম্বারের বিরুদ্ধে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক, কুমিল্লা   

৯ অক্টোবর, ২০১৬ ১৫:৫৯



বুড়িচংয়ে অনিয়মের অভিযোগে ইউপি মেম্বারের বিরুদ্ধে মামলা

কুমিল্লার বুড়িচংয়ে হতদরিদ্রদের জন্য ১০ টাকা কেজির চাল প্রাপ্তির কার্ড বিতরণে ব্যাপক অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগে তদন্ত করে অভিযুক্ত ইউপি সদস্য মোঃ শাহজাহানের নামে মামলা দায়ের করেছে প্রশাসন। হতদরিদ্রদের চিহ্নিত করে কার্ড বিতরণের কথা থাকলেও নানা অনিয়ম ও স্বজনপ্রীতির কারণে সরকারের এই বিশেষ সুবিধা থেকে বঞ্চিত হয়েছে বুড়িচং উপজেলার অসহায় ও গরীবরা।

কার্ড বিতরণে দলীয় নেতা, ব্যবসায়ী ও সচ্ছল ব্যক্তিদেরকে কার্ড দেয়ার বিষয়টি এখন সবার মুখে মুখে।

বুড়িচং উপজেলার দুই তলা বাড়ীর মালিক, একই পরিবারের তিন সদস্য, সদস্য সমাপ্ত ইউপি নির্বাচনে মেম্বার পদে অংশগ্রহনকারী, সরকারী বেতন ভূক্ত কর্মচারী, উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অফিস সহকারীসহ চেয়ারম্যান মেম্বারদের কাছের লোকজদের নামে ইস্যু করা হয়েছে অসংখ্য কার্ড। আর কার্ড দেয়ার ক্ষেত্রে ৭৫ বছরের বিধবাসহ অসহায় দরিদ্রদের বঞ্চিত করা হয়েছে এই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে প্রশাসন বিষয়টি তদন্ত করেন। তদন্ত শেষে শনিবার(০৮অক্টোবর) রাতে ধারা-৪০৬/৪২০ পেনাল কোডে বুড়িচং উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক সংগীত কুমার সরকার বাদী হয়ে বুড়িচং উপজেলার ৩নং সদর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের মেম্বার মোঃ শাহজাহানকে আসামী করে বুড়িচং থানায় একটি মামলা দায়ের করেন, মামলা নং ৭, তারিখ ০৮/১০/২০১৬ইং।

মামলার এজাহারে জানা যায়, ৩নং বুড়িচং সদর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মোঃ শাহজাহান(৪৫) কুমিল্লা ইউনিয়ন পর্যায়ে হতদরিদ্রদের জন্য সরকার নির্ধারিত মূল্যে খাদ্য শস্য নীতিমালা/২০১৬ এর বিধান অনুযায়ী তার ওয়ার্ডের হতদরিদ্রদের তালিকা প্রস্তুত করার দায়িত্বপ্রাপ্ত হয়ে সরকার কর্তৃক প্রদত্ত নীতিমালা উপেক্ষা করে নিজের ইচ্ছামত ৬নং ওয়ার্ডের স্বচ্ছল পরিবারের সদস্য জরইন গ্রামের মৃত ইউসুফ আলীর ছেলে মোঃ রমজান আলী, হরিপুর গ্রামের আবদুল হালিমের ছেলে আবদুল আজিজ, একই গ্রামের হালিমের ছেলে সুমনের নাম তালিকাভূক্ত করেন। পরে তালিকাভুক্তরা গত ৩০সেপ্টেম্বর বুড়িচং উত্তর বাজার আবুল হাশেম মেম্বার ডিলার থেকে হতদরিদ্র তালিকা অনুযায়ী কম মূল্যে (১০ টাকা) চাল উত্তোলন করেন। আসামী মোঃ শাহজাহান অপরাধমূলক বিশ্বাসভঙ্গ  ও প্রতারনার মাধ্যমে তালিকা প্রস্তুত করিয়া স্বচ্ছল ব্যক্তিদের কমমূল্যে (১০ টাকা) চাল উত্তোলনের সুযোগ করে দেওয়ায় তদন্তসাপেক্ষে তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়।

জানা যায়, মামলার এজাহারে উল্লেখিত জরইন গ্রামের মৃত ইউছুফ আলীর পুত্র মোঃ রমজান আলীর নামে ১০ টাকা কেজিতে একটি কার্ড আছে, যার কার্ড নং ৪২৯। কার্ডধারী রমজান আলীর দুই তলা একটি বাড়ী আছে। তার ছেলে জামাল হোসেন দীর্ঘদিন ধরে মালয়েশিয়ায় কর্মরত আছে। সামাজিকভাবে সে অত্যন্ত স্বচ্ছল ব্যক্তি। এছাড়া ইউনিয়নের হরিপুর গ্রামের আঃ হালিমের তিন ছেলে মোহন মিয়া, আঃ আজিজ, ইউপি নির্বাচনে অংশগ্রহনকারী সুমন ভূইয়ার নামেও দেয়া হয়েছে ৩টি কার্ড ।

এদিকে জরুইন গ্রাম ৬০ বছরের বৃদ্ধা বিধবা আছিয়া বেগমের কোন ছেলে নেই। ৪ মেয়ের মধ্যে দুটি মেয়েকে নিয়ে অন্যের বাড়ীতে কাজ করে কোনরকমে জীবিকা নির্বাহ করে। কার্ড থেকে সে বঞ্চিত হয়েছে। এছাড়া হরিপুর গ্রামের ৭৫ বছরের বিধবা মৃত আলী আহাম্মদের স্ত্রী হাজেরা বেগম, মৃত অছিম উদ্দিনের ছেলে ৬৫ বছরের বৃদ্ধ অলি মিয়াও বঞ্চিত হয়েছে এই সুবিধা থেকে।

বুড়িচং থানার এসআই মোঃ সাইফুল ইসলাম মামলাটি তদন্ত করছেন।

 


মন্তব্য