kalerkantho

রবিবার। ৪ ডিসেম্বর ২০১৬। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


পাবনায় ডাকাতের গুলিতে বাবা-ছেলেসহ আহত ৩

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৫ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:৪৯



পাবনায় ডাকাতের গুলিতে বাবা-ছেলেসহ আহত ৩

পাবনা সদর উপজেলার টেবুনিয়া বাজারে ডাকাতির সময় আগ্নেয়াস্ত্রসহ ২ ডাকাতকে ধরে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে স্থানীয়রা। এ ঘটনায় ডাকাতের ছোঁড়া গুলিতে আহত হয়েছেন ব্যবসায়ী বাবা-ছেলেসহ তিনজন।

আজ বুধবার সন্ধ্যা ৭ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন- উপজেলার মজিদপুর গ্রামের কোরবান আলীর ছেলে ব্যবসায়ী আতাউর রহমান (৬০), তার ছেলে রকি হোসেন (২২) এবং অপর ব্যবসায়ী মনিদহ গ্রামের শামসুল মাস্টারের ছেলে সবুজ হোসেন (৩০)। আহতদের পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন স্থানীয়রা। এদের মধ্যে গুরুতর আহত আতাউর রহমান ও তার ছেলে রকিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। আর আটককৃতরা হলেন- গাজীপুরের চান্দুরা এলাকার জিহাদ প্রামানিকের ছেলে মোস্তফা প্রামানিক (৪০) ও পাবনার সুজানগর উপজেলার ক্ষেতুপাড়া গ্রামের খবির মোল্লার ছেলে আকুব্বর মোল্লা (৩০)।

স্থানীয় ব্যবসায়ীরা জানান, বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলার ব্যস্ততম টেবুনিয়া বাজারে কয়েকজন ডাকাত চাল ও তেল ব্যবসায়ী আতাউর রহমানের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে অস্ত্রের মুখে ডাকাতির চেষ্টা করে। এ সময় আতাউর রহমান ও তার ছেলে রকি ডাকাতদের বাধা দিলে তাদের বেধড়ক মারধর করতে থাকে। তাদের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে গেলে ডাকাতদল এলোপাথারি গুলি ছোঁড়ে। এতে বাবা-ছেলে ও আরেক ব্যবসায়ী সবুজ গুলিবিদ্ধ হন। স্থানীয় ব্যবসায়ী ও এলাকাবাসী ডাকাতদের ধাওয়া করে ২ জনকে ধরে গণুপিটুনি দিয়ে থানায় খবর দেয়।

এ ব্যাপারে পাবনা সদর থানার ওসি (তদন্ত) মুন্সী আবু কুদ্দুস জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে দুই ডাকাতকে আটক করে। এ সময় তাদের কাছ থেকে দুটি বিদেশী পিস্তল ও ৮ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়। আহত দুই ডাকাতকে পুলিশি পাহারায় পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।


মন্তব্য