kalerkantho

বুধবার । ৭ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৬ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ইউএনও-ওসিকে দেখেই পালাল বর ও বরযাত্রীরা

ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি   

৪ অক্টোবর, ২০১৬ ২১:৩০



ইউএনও-ওসিকে দেখেই পালাল বর ও বরযাত্রীরা

সকল আয়োজন সম্পন্ন করে কাজী সাহেব কনের কবুল নেওয়ার সম্মতি নিতে ছিলেন। এমন সময়ে ইউএনও ও ওসির উপস্থিতি টের পেয়ে বর ও বরপক্ষের লোকজন বিয়ের আসর ছেড়ে দ্রুত পালিয়ে যায়।

গতকাল সোমবার রাত ১০টার দিকে নান্দাইল উপজেলার রাজগাতী ইউনিয়নের কাশীনগর গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে। এ সময় সরকারী দলের স্থানীয় নেতারা বিয়ে পড়ানোর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়।

উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, রাজগাতী ইউনিয়নের স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রীর বিয়ের আয়োজন করে তার পরিবার। ওই ছাত্রীকে বিয়ে দেওয়া হচ্ছিল পাশের আউটারগাতী গ্রামের আবদুল মালেকের ছেলে মামুদ মিয়ার (১৭) সাথে। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, এ বিয়েতে রাজী না হলেও বাধা দিতে পারছিল না স্কুল ছাত্রী। পরে ওই গ্রাম থেকে মুঠোফোনে প্রশাসনকে ঘটনাটি জানানো হয়।

এ ব্যাপারে নান্দাইল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) দায়িত্বপ্রাপ্ত সহকারী কমিশনার (ভুমি) মো. তামীম আল ইয়ামীন বলেন, খবর পেয়ে তিনি ঘটনাস্থলে যাওয়ার পর বর ও তাঁর পক্ষের লোকজন বিয়ের আসর থেকে দৌড়ে জঙ্গলে আত্মগোপন করে। পরে তিনি স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানকে উভয় পরিবারের কাছ থেকে অঙ্গীকারনামা নিয়ে আজ মঙ্গলবার প্রশাসনের কাছে জমা দিতে বলেন।  

আজ বিকেল সাড়ে চারটার দিকে যোগাযোগ করলে ইউপি চেয়ারম্যান মো. রোকন উদ্দিন বলেন, উভয় পরিবারের কাছ থেকে অঙ্গীকারনামা আদায় করা হয়েছে। তিনি সেটি ইউএনও অফিসে জমা দেবেন।


মন্তব্য