kalerkantho


বিয়ের তিন মাসের মাথায় নববধূর আত্মহনন

দাউদকান্দি (কুমিল্লা) প্রতিনিধি    

১ অক্টোবর, ২০১৬ ২০:১৯



বিয়ের তিন মাসের মাথায় নববধূর আত্মহনন

হাতের মেহেদি শুকাতে না শুকাতে বিয়ের তিন মাসের মাথায় পপি আক্তার (২২) নামে এক নববধূ গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। আজ শনিবার দুপুরে কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলায় স্বামীর বাড়ি গৌরীপুর ইউনিয়নের গৌরীপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত পপি আক্তার মাদ্রাসা থেকে আলেম পাশ ওই গ্রামের শামসু মিয়ার ছেলে শাহজালালের স্ত্রী ও একই গ্রামের শফিকুল ইসলামের মেয়ে।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গৌরীপুর গ্রামের শফিকুল ইসলামের মেয়ে মাদ্রাসা থেকে আলেম পাশ করা পপি আকতারকে তিন মাস আগে বিয়ে দেওয়া হয় একই গ্রামের শামসু মিয়ার ছেলে শাহজালালের সঙ্গে। বিয়ের পর থেকে স্বামী শাহজালাল মাদকাসক্ত হওয়ায় তার সঙ্গে বনিবনা হচ্ছিল না পপির। মাদকসাক্ত স্বামী শাহজালালকে এ পথ থেকে ফিরিয়ে আনতে অনেক চেষ্টা করেন তিনি। শেষ পর্যন্ত ব্যর্থ হয়ে ক্ষোভে অভিমানে আজ শনিবার দুপুরে ঘরের ভেতর গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন।

নিহত গৃহবধূর বাবা সফিকুল ইসলাম বলেন, "আমার মেয়ে পপি আক্তার মাদ্রাসা থেকে আলেম পাশ করেছে। আমরা জানতাম না জামাই মাদকাসক্ত। আমার মেয়ে বিয়ের পর মাদকাসক্ত স্বামীকে ওই পথ থেকে ফিরিয়ে আনার জন্য অনেক চেষ্টা করেছে। আমাদের ধারণা জামাইকে ওই পথ থেকে ফিরিয়ে আনতে না পারায় আত্মহত্যা করেছে সে। "

গৌরীপুর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ তপন কুমার বাকচী জানান, মেয়েটির জামাই শাহজালাল মাদকাসক্ত ছিলেন। হয়তো মেয়েটি ওই পথ থেকে জামাইকে ফিরিয়ে আনতে না পারায় আত্মহত্যা করেছেন। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লায় পাঠানো হয়েছে।

 


মন্তব্য