kalerkantho

শনিবার । ৩ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ২ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


বাগাতিপাড়ায় প্রতিমা তৈরিতে মাটির কাজ শেষ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৫:৩১



বাগাতিপাড়ায় প্রতিমা তৈরিতে মাটির কাজ শেষ

সনাতন ধর্মাবলম্বীর প্রধান ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গোৎসবকে সামনে রেখে দেশের অন্যান্য স্থানের মতো নাটোরের বাগাতিপাড়া উপজেলায় প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত কারিগররা। ইতিমধ্যে প্রতিমা তৈরিতে মাটির কাজ শেষ হয়েছে।

এখন প্রতিমাকে নানা রং ও বর্ণিল সাজে সাজাতে চলছে নানা কারুকাজ। একটি পৌরসভা এবং পাঁচটি ইউনিয়নের মধ্যে চার ইউনিয়নে ধুমধাম ও উৎসবমুখর পরিবেশে দুর্গোৎসবের জন্য প্রস্তুত ১৯টি মন্দির।

কয়েকটি মন্দির ঘুরে দেখা গেছে, প্রতিমা তৈরিতে মাটির কাজ শেষ, বাকি শুধু রং তুলির কাজ। মাটি শুকিয়ে গেলেই শুরু হবে রং তুলির কাজ। প্রতিমা নির্মাতারা নির্ধারিত সময়ে কাজ শেষ করতে পেরে বেশ স্বস্তিতে রয়েছেন। তাঁরা জানান, আগামী দু-একদিনের মধ্যেই শুরু হবে রংয়ের কাজ। বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ বাগাতিপাড়া উপজেলা শাখার সভাপতি শ্রী কুমার মুখার্জী (তিনকড়ি ঠাকুর) আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতিতে সন্তোষ প্রকাশ করে জানান, মন্দিরগুলোতে যেন সুষ্ঠু ও সুন্দর পরিবেশে শারদীয় দুর্গোৎসব পালিত হয় সে লক্ষ্যে ইতিমধ্যে উপজেলা প্রশাসন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বহিনী, জনপ্রতিনিধিসহ সংশ্লিষ্ট সবার সঙ্গে বৈঠক হয়েছে। আশা করা যাচ্ছে, অতীতের ন্যায় এ বছরও সবাই মিলে সুন্দরভাবে দুর্গোৎসব পালনে সক্ষম হবেন তাঁরা।  

এ বছর উপজেলার যেসব মন্দিরে সার্বজনীন দুর্গোৎসব হবে সেগুলো হলো পৌর এলাকায় দুইটি, পাঁকা ইউনিয়নে পাঁচটি, জামনগর ইউনিয়নে ছয়টি, বাগাতিপাড়া সদর ইউনিয়নে তিনটি ও দয়ারামপুর ইউনিয়নে তিনটি।

 


মন্তব্য