kalerkantho

শনিবার । ১০ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


শেরপুরে শিক্ষকের প্রহারে স্কুলছাত্র আহত

শেরপুর প্রতিনিধি   

২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৯:৩৮



শেরপুরে শিক্ষকের প্রহারে স্কুলছাত্র আহত

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শারিরিক শাস্তি নিষেধ থাকলেও তা মানছেন না শিক্ষকরা। পড়া না শেখায় আজ সোমবার শেরপুর সরকারী ভিক্টোরিয়া একাডেমীর সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্রকে শ্রেণীকক্ষেই স্কেল দিয়ে পিটিয়ে রক্তাক্ত আহত করেছেন পার্থ দত্ত নামে  খণ্ডকালীন এক শিক্ষক।

আহত ওই ছাত্র মো. হাবিবুর রহমান শান্তকে (১২) শেরপুর জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় বিদ্যালয়ের ছাত্ররা বিক্ষোভ করেছে।

শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের সূত্রে জানা গেছে, ন্যাশনাল সার্ভিস থেকে আসা পার্থ দত্তকে দেড় বছর আগে কম্পিউটার অপারেটর হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়। খণ্ডকালীন ওই শিক্ষক কম্পিউটার ক্লাস নেওয়ার কথা।  কিন্তু তিনি গণিত, বিজ্ঞানসহ স্কুলের অনেক ক্লাস নেন। আজ সোমবার সকালে সপ্তম শ্রেণির বিজ্ঞান ক্লাসে গিয়ে তিনি পড়া না পাওয়ায় ছাত্র হাবিবুর রহমান শান্তকে লোহার স্কেল দিয়ে বেদম প্রহার করেন। এ সময় শিক্ষার্থী রক্তাক্ত অবস্থায় বিদ্যালয়ের পাশেই তার চাচার বাসায় গিয়ে জ্ঞান হারান। পরে তাকে জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনাটি জানাজানি হলে ছাত্ররা বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করে। পরে ছাত্রের চাচা বিষয়টি জেলা প্রশাসক ডা. এ এম পারভেজ রহিমকে জানালে তিনি জেলা যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. হারুনর রশিদকে ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেন।

এ ব্যাপারে শেরপুর সরকারী ভিক্টোরিয়া একাডেমীর প্রধান শিক্ষক রায়হানা আক্তার বেগম বলেন, ঘটনাটি দুঃখজনক। আমরা ওই শিক্ষককে প্রত্যাহার করার জন্য কর্তৃপক্ষকে লিখিতভাবে জানিয়েছি।


মন্তব্য