kalerkantho


হাসপাতালে মৃত ঘোষণার ছয় ঘণ্টা পর কেঁদে উঠল নবজাতক

ফরিদপুর প্রতিনিধি    

২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৪:০৯



হাসপাতালে মৃত ঘোষণার ছয় ঘণ্টা পর কেঁদে উঠল নবজাতক

ফরিদপুর শহরের ডা. জাহেদ মেমোরিয়াল শিশু হাসপাতালের চিকিৎসক কর্তৃক মৃত ঘোষিত নবজাতককে কবর দিতে গিয়ে তাকে জীবিত পাওয়া গেছে। বর্তমানে নবজাতকটি ওই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। আজ বৃহস্পতিবার সকালে এ ঘটনা ঘটে। তবে নবজাতকের জীবিত থাকার বিষয়টি 'মিরাকল' বলে উল্লেখ করেছেন হাসপাতালে কর্তব্যরত চিকিৎসক।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, ফরিদপুর শহরের কমলাপুর এলাকার বাসিন্দা নাজমুল হুদা মিঠু তাঁর অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী নাজনীন আক্তারকে গতকাল বুধবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে শিশু হাসপাতালের গাইনি বিভাগে ভর্তি করেন। এক ঘণ্টা পর নাজনীন একটি কন্যা সন্তান প্রসব করেন। কিন্তু সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক রিজিয়া আলম নবজাতককে মৃত ঘোষণা করেন। ওই রাতেই নবজাতককে কবর দেওয়ার জন্য একটি কার্টনে করে শহরের আলীপুর কবরস্থানে নেওয়া হয়। এ সময় তাকে ভোরে কবর দেওয়ার কথা বলে কার্টনভর্তি নবজাতককে সেখানে রেখে আসা হয়। আজ বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে ৬টার দিকে ওই নবজাতককে কবর দিতে গেলে হঠাৎ কেঁদে ওঠে সে। পরে তাকে দ্রুত শিশু হাসপাতালে নেওয়া হয়।

বর্তমানে তাকে ইনকিউবিটরে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

ডা. রিজিয়া আলম বলেন, "ওই রাতে আমি নবজাতকের পালস না পেয়ে তাকে মৃত ঘোষণা করেছিলাম সত্যি। কিন্তু পরে ভোরে তাকে জীবিত দেখে অবাক হয়েছি। " এটি একটি 'মিরাকল' বলে মন্তব্য করেন তিনি। তবে বর্তমানে নবজাতকটি সুস্থ রয়েছে বলে জানান তিনি।

 


মন্তব্য