kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ফুলবাড়ীতে বজ্রপাতে নিহত ব্যক্তির মরদেহ শয়ন কক্ষে দাফন

পার্বতীপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি   

২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২১:২৫



ফুলবাড়ীতে বজ্রপাতে নিহত ব্যক্তির মরদেহ শয়ন কক্ষে দাফন

দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে বজ্রপাতে নিহত ব্যক্তির মৃতদেহ চুরি হওয়ার আশঙ্কায় মরদেহটি তার বাড়ির শয়ন কক্ষে দাফন করেছে স্বজনেরা। এ ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার রুদ্রানী বাজার এলাকায়।

 

জানা গেছে, গত ১৯ সেপ্টেম্বর দুপুরে বজ্রপাতে রুদ্রানী ভেড়ম গ্রামের সজিম উদ্দিনের ছেলে সাদ্দাম হোসেন নিহত হয়। এ ঘটনায় সজিম উদ্দিন ও তার বড় ছেলে নুরুজ্জামান নিহত সাদ্দামের মৃতদেহ চুরি হওয়ার আশঙ্কায় তার শয়ন কক্ষে সাদ্দাম হোসেনের লাশ দাফন করে। এদিকে এ ঘটনাটি এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি করেছে।  

সাদ্দাম হোসেনের বড় ভাই নুরুজ্জামান বলেন, বজ্রপাতে নিহত ব্যক্তির মৃতদেহ নাকি অতি মূল্যবান, এজন্য বিভিন্ন এলাকায় বজ্রপাতে নিহত ব্যক্তির মৃতদেহ চুরি হওয়ার খবর পাওয়া গেছে বিভিন্ন সময়। একই কারণে ছোট ভাই সাদ্দাম হোসেন বজ্রপাতে নিহত হওয়ার পরে তার মরদেহটি যাতে চুরি না হয় সে জন্য বাড়িতে সাদ্দাম হোসেনের শয়ন কক্ষে তার মরদেহটি দাফন করা হয়েছে।  

তবে সাদ্দাম হোসেনের বাবা সজিম উদ্দিন বলেন, তার যুবক ছেলে মৃত্যুর ঘটনাটি সে কিছুতেই মেনে নিতে পারছে না। এ কারণে সে ছেলের কবরটি তার সামনে রাখার জন্য এ কাজ করেছেন বলে উল্লেখ করেন তিনি।  

উল্লেখ্য, বজ্রপাতে নিহত ব্যক্তির মৃতদেহ অতি মূল্যবান- এ রকম কুসংস্কার আমাদের সমাজে প্রচলিত আছে দীর্ঘদিন ধরে। এজন্য বজ্রপাতে নিহত ব্যক্তির মৃতদেহ সমাহিত করার পর কবর পাহাড়া দেওয়ার ঘটনাও চলে আসছে। কিন্তু সাদ্দাম হোসেনের স্বজনরা তার নিজ শয়ন কক্ষেই ছেলের মরদেহ দাফন করেছে। এই ঘটনাটি উপজেলায় প্রথম বলে প্রতিবেশী ও সাদ্দাম হোসেনের স্বজনরা জানান।


মন্তব্য