kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


সেরা সাঁতারুর খোঁজে বাংলাদেশ

কক্সবাজার থেকে ইয়েস কার্ড পেল প্রতিভাবান ১৭ সাঁতারু

নিজস্ব প্রতিবেদক, কক্সবাজার   

২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২০:৫২



কক্সবাজার থেকে ইয়েস কার্ড পেল প্রতিভাবান ১৭ সাঁতারু

সাঁতার অন্বেষণ প্রতিযোগিতা “সেরা সাঁতারুর খোঁজে বাংলাদেশ” এর কক্সবাজার অঞ্চলের বাছাই পর্ব সম্পন্ন হয়েছে। এতে ঢাকায় চুড়ান্ত পর্বের জন্য কক্সবাজার জেলা থেকে ১৭ জন সাঁতারু ইয়েস কার্ড পেয়েছে ।

তার মধ্যে ১০ জন বালক ও ০৭ জন বালিকা। আজ বুধবার কক্সবাজার সদর উপজেলা পুকুরে চার ক্যাটাগরিতে এই বাছাই পর্ব সম্পন্ন হয়।  

বাংলাদেশ সুইমিং ফেডারেশন ও নৌ বাহিনীর যৌথ উদ্যোগে দেশে প্রথম বারের মতো আয়োজিত এই বাছাই পর্বে কক্সবাজারের প্রায় দেড় শতাধিক সাঁতারু (নারী-পুরুষ) অংশ নেয়।

এই প্রতিযোগিতায় ইয়েস কার্ড প্রাপ্তরা হলেন- খালেক, ইউনুছ, জন্নাতুল, ফরিদুল, আনিছা, আরকান, গফুর, হামিদুল­াহ, সুমি আক্তার, সাঈদ, ফারুক, রুনা, সাদিয়া, শাহাদাত, দেলোয়ার, তৈয়বা ও সুমাইতা।  

এদিকে উৎসবমুখর পরিবেশে কক্সবাজার সদর উপজেলা পুকুরে দিনব্যাপী এই সাঁতার বাছাই পর্বের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মোঃ আলী হোসেন। এতে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ নৌ বাহিনীর কর্মকর্তা কমান্ডার এস এম মাহমুদুর রহমান, লেঃ কমান্ডার এম নাঈমুল হক, লেঃ কমান্ডার এম নাহিদ হাসান ও বাংলাদেশ সাঁতার ফেডারেশনের সহ-সভাপতি আবদুল মান্নান।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, সারা দেশের প্রতিটি জেলা পর্যায়ে প্রতিযোগিতার মাধ্যমে প্রতিটি জেলা হতে ১০ থেকে ২০ জন সাঁতারু নির্বাচন করা হবে। এভাবে ৬৪টি জেলা হতে মোট ১০০০ জন প্রতিভা সম্পন্ন সাঁতারু বাছাই করে ঢাকায় আনা হবে।  

প্রতিযোগিতার ২য় পর্বে এক হাজার জনের মধ্যে পুনরায় প্রতিযোগিতার মাধ্যমে ১৬০ জনকে নির্বাচিত করে বিদেশি প্রশিক্ষকের মাধ্যমে তিন মাসব্যাপী নিবিড় প্রশিক্ষণ প্রদান করা হবে। প্রশিক্ষণ শেষে চুড়ান্ত প্রতিযোগিতার মাধ্যমে ১৬০ হতে সেরা ৬০ জন সাঁতারু নির্বাচন করা হবে। এই সেরা ৬০ জন সাঁতারুর প্রত্যেককে ম্যাডেল সার্টিফিকেট ও নগদ অর্থ পুরস্কার দেওয়া হবে।

এ ছাড়াও এদের মধ্যে ৪টি ইভেন্টের সেরা ৮ জন নারী ও পুরুষ সাঁতারুকে ৫ লাখ টাকা করে প্রদান করা হবে। এভাবে ৩টি পর্বে সর্বমোট ৬৫ লাখ টাকার পুরস্কারের ব্যবস্থা করা হয়েছে।  

সূত্র আরো জানায়, সেরা ৬০ জন সাঁতারু বাংলাদেশ সুইমিং ফেডারেশনে যোগ দেবেন এবং তাদেরকে বিশ্বমানের সাঁতারু হিসেবে গড়ে তুলার লক্ষে দীর্ঘ মেয়াদী প্রশিক্ষণ প্রদান করা হবে। তাছাড়া তাদের লেখাপড়ার ব্যবস্থাসহ যাবতীয় ব্যয়ভার সুইমিং ফেডারেশনের পক্ষ থেকে বহন করা হবে।  


মন্তব্য