kalerkantho

শুক্রবার । ২ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


বরের পলায়ন, বাবা-মাকে জরিমানা

ভোলায় বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেল স্কুলছাত্রী

ভোলা প্রতিনিধি    

২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৫:০০



ভোলায় বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেল স্কুলছাত্রী

ভোলার দৌলতখান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার অভিযানে বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেয়েছে এক স্কুলছাত্রী। গতকাল সোমবার রাতে এ বাল্যবিয়ে হওয়ার কথা ছিল।

এ ঘটনায় ভ্রাম্যমাণ  আদালত কনের বাবা-মাকে দুই হাজার টাকা জরিমানা করেছেন।     

স্থানীয় সূত্র জানায়, গতকাল সোমবার রাতে দৌলতখান উপজেলার সৈয়দপুর ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের জামাল হোসেনের বাড়িতে তার মেয়ে স্থানীয় হালিমা খাতুন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী তানিয়া আক্তারের সঙ্গে পার্শ্ববর্তী  বোরহানউদ্দিন উপজেলার বড়মানিকা ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের সালাউদ্দিনের বাল্যবিয়ের প্রস্তুতি চলছিল। খবর পেয়ে দৌলতখান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আ. কুদদূস রাত সোয়া ১১টার দিকে ওই বাড়িতে অভিযান চালান। ইউএনও'র উপস্থিতি টের পেয়ে বিয়ে করতে আসা বর সালাউদ্দিন কনের বাড়ি থেকে পালিয়ে যান। এতে  বন্ধ হয়ে যায় বাল্যবিয়ে।

দৌলতখান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আ. কুদদূস জানান, স্থানীয় হালিমা খাতুন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী তানিয়া আক্তারকে (১৩) বাল্যবিয়ে দেওয়ার দায়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে তিনি মেয়ের বাবা জামাল হোসেন ও মা মমতাজ বেগমের কাছ থেকে দুই হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন। তানিয়াকে ওই ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ইউনুসের জিম্মায় দেওয়া হয়।

 


মন্তব্য