kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


মাদারগঞ্জে গৃহবধুর গলাকাটা লাশ উদ্ধার

জামালপুর প্রতিনিধি   

১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৮:০৫



মাদারগঞ্জে গৃহবধুর গলাকাটা লাশ উদ্ধার

জামালপুর জেলার মাদারগঞ্জ পৌরসভার ক্ষুদ্র জোনাইল গ্রামের নিজ বাড়ী থেকে শুক্রবার গভীর রাতে আয়শা বেগম(৪৫) নামের এক বিধবার লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানাগেছে, মাদারগঞ্জ পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের ক্ষুদ্র জোনাইল গ্রামের মৃত আব্দুল খালেক এর স্ত্রী আয়শা বেগম।

তার একমাত্র পুত্র দক্ষিণ আফ্রিকায় প্রবাসী হওয়ায় তিনি দীর্ঘদিন যাবত নিজ বাড়ীতে একাই বসবাস করতেন। আয়শা বেগম এলাকাবাসীর নিকট প্রায় ২৫ লক্ষ টাকা বিনিয়োগ করে কিছু ক্ষুদ্র ব্যবসা পরিচালনা করতেন। ওই অবস্থায় গত ঈদুল আজহার দিন নিকটাত্মীয়দের মাঝে কোরবানীর মাংস বিতরণ শেষে রাতে তিনি নিজ বাড়ীতে প্রবেশ করেন। ওই রাতেই কোন অজ্ঞাত দুবৃত্তরা তার বাড়ীতে প্রবেশ করে আয়শা বেগমকে গলা কেটে হত্যা করে লাশ তার ঘরের ভিতর রেখেই ঘরের দরাজা এবং বাড়ির গেটে তালাবদ্ধ করে চলে যায়।

এরপর একাধারে দুইদিন বাড়ির গেট তালাবদ্ধ ছিল। এরপর প্রথম অবস্থায় এলাকাবাসী ধারনা করেছিলেন তিনি হয়তো কোন আত্মীয় স্বজনের বাড়ীতে বেড়াতে গেছেন। একপর্যায়ে নিকটাত্মীয়রা তাকে বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুজি শেষে শুক্রবার রাতে বাড়ির গেট ও ঘরের তালা ভেঙ্গে ফেলে। অবশেষে তারা ঘরের ভিতরে গিয়ে আয়শা বেগম এর লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠায়।

মাদারগঞ্জ থানার ওসি বিল্লাল উদ্দিন জানান, এ ব্যাপারে নিহতের ভাই শাহজাহান বাদী হয়ে অজ্ঞাত দুবৃত্তদের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। তবে নিহত আয়শা বেগম এলাকায় প্রায় ২৫ লাখ টাকা বিনিয়োগ করেছিলেন। ওই বিনিয়োগকৃত টাকা নিয়ে কারো সাথে দ্বন্দ্বের কারণে কেউ তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে থাকতে পারে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে।


মন্তব্য