kalerkantho


ফুলবাড়ীতে মাদক বিক্রির অভিযোগে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা-ভাংচুর

পার্বতীপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি   

১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৭:৪৫



ফুলবাড়ীতে মাদক বিক্রির অভিযোগে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা-ভাংচুর

দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে মাদক বিক্রির অভিযোগে খড়ির দোকানে হামলা ও ভাংচুর করেছে মহিলা কাউন্সিলরসহ তার সহযোগীরা। আজ শনিবার বেলা ১১টায় ফুলবাড়ী পৌর শহরের বটতলী মোড় নামক স্থানে মাদক ব্যবসায়ী সিরাজুল ইসলাম গামার খড়ির দোকানে এই হামলা ও ভাংচুরের ঘটনা ঘটে।

ঘটনার পর ফুলবাড়ী থানার পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

সিরাজুল ইসলাম গামার স্ত্রী মোছাঃ মঞ্জুয়ারা বেগম বলেন, বেলা ১১টায় ১নং সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর রোকেয়া বেগমের নেতৃত্বে দলিল লেখক মামুনুর রশিদ সহ ২০ থেকে ২৫ জনের একটি সন্ত্রাসী দল তাদের খড়ির দোকানে হামলা চালায় এবং দোকান ঘর ভাংচুর করে গুঁড়িয়ে দেয়। এ সময় তিনি বাধা দিতে গেলে তাকেও মারধর করা হয়।

১নং সংরক্ষিত আসনের মহিলা কাউন্সিলর রোকেয়া বেগম বলেন, সিরাজুল ইসলাম গামা একজন চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী। সে দীর্ঘদিন থেকে খড়ির ব্যবসার আড়ালে মাদকের ব্যবসা চালিয়ে আসছিল। তার মাদক ব্যবসার কারণে যুব সমাজ ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে। এ কারণে এলাকাবাসীদের সাথে নিয়ে তিনি তার মাদক ব্যবসার আস্তানা গুঁড়িয়ে দিয়েছেন।

অপরদিকে সিরাজুল ইসলাম গামার ভাতিজা সোহেল অভিযোগ করে বলেন, তার চাচা সিরাজুল ইসলাম গামা জেলে থাকার সুযোগে তার জায়গাটি জবর দখল করার উদ্দেশে মহিলা কাউন্সিলর রোকেয়া বেগম এই ঘটনা ঘটিয়েছেন।

ফুলবাড়ী থানার ওসি (তদন্ত) আব্দুর রহমান বলেন, হামলা ভাংচুরের ঘটনার কথা শুনে তৎক্ষনাত পুলিশ দিয়ে উভয় পক্ষকে ছত্রভঙ্গ করা হয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত কোন পক্ষই মামলা দায়ের করেন নাই। মামলা দায়ের করা হলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

সিরাজুল ইসলাম গামা দীর্ঘদিন থেকে তার খড়ির দোকানের আড়ালে মাদক ব্যবসা চালিয়ে বলে এলাকাবাসীর অভিযোগ করে আসছিলো। তার বিরুদ্ধে ফুলবাড়ী থানায় একাধিক মাদকের মামলা রয়েছে এবং গত ৭ই আগস্ট গামার খড়ির দোকানে র‌্যাব-১৩ দিনাজপুর অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ মাদক ও মাদক বিক্রির প্রায় সাড়ে ৪ লাখ টাকাসহ গামাকে গ্রেফতার করে। তখন থেকে গামা জেল হাজতে রয়েছে।


মন্তব্য