kalerkantho


ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান

মধুখালীতে দুই মৎস্যজীবীকে এক বছর করে কারাদণ্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক, ফরিদপুর    

১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৩:৫০



মধুখালীতে দুই মৎস্যজীবীকে এক বছর করে কারাদণ্ড

ফরিদপুরের মধুখালীর তিনটি ইউনিয়নের বিভিন্ন বিলে অভিযান চালিয়ে অবৈধ কারেন্ট জাল ও নিষিদ্ধ ভেসাল দিয়ে মাছ ধরার অভিযোগে দুই মৎস্যজীবীকে এক বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ ছাড়া অপর দুই মৎস্যজীবীকে পাঁচ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে।

আজ শনিবার সকালে মধুখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বেগম লুৎফুন নাহারের নেতৃত্বে পরিচালিত ভ্রাম্যমাণ আদালত এ সাজা দেন।

এক বছরের সশ্রম কারাদণ্ডপ্রাপ্ত দুই মৎস্যজীবী হলেন কোরকদী গ্রামের রোস্তম মোল্লার ছেলে ইমাম মোল্লা (৩৪) ও মৃত শহীদ শেখের ছেলে রবিউল শেখ (৩৩)। এ ছাড়া আড়কান্দি গ্রামের ইসহাক শেখের ছেলে সরোয়ার শেখ (৪২) ও আব্দুর রব মোল্লার ছেলে বাদশা মোল্লাকে পাঁচ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা গেছে, মধুখালী উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা সাইফুল ইসলামের নেতৃত্বে আজ শনিবার ভোর ৪টা থেকে সকাল ৮টা পর্যন্ত উপজেলার ডুমাইন, আড়পাড়া ও নওপাড়া ইউনিয়নের হরিণখোল, ক্ষুদে কোলা এবং আড়কানি্ত সেতু এলাকার বিলে অভিযান চালানো হয়। এ সময় অবৈধ কারেন্ট জাল ও নিষিদ্ধ ভেসাল দিয়ে মাছ ধরার অভিযোগে ওই চার মৎস্যজীবীকে আটক করা হয়। পরে তাদেরকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে সোপর্দ করা হলে আদালত তাদেরকে কারাদণ্ড ও জরিমানা করেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ইউএনও বেগম লুৎফুন নাহার জানান, ওই মৎস্যজীবীরা কারেন্ট জাল ও নিষিদ্ধ ভেসাল দিয়ে ৯ সেন্টিমিটারের কম দৈর্ঘ্যের মাছ ধরছিল। তিনি বলেন, "১৯৫০ সালের মৎস্য সংরক্ষণ আইনের বিভিন্ন ধারায় তাদেরকে সাজা দেওয়া হয়েছে। "

 


মন্তব্য