kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


৪র্থ শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণের পর এবার খুন করার হুমকি!

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, কুড়িগ্রাম   

১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৯:০৯



৪র্থ শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণের পর এবার খুন করার হুমকি!

কুড়িগ্রামের রৌমারীতে ৪র্থ শ্রেণির এক স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ করার পর এবার হত্যা করার হুমকি দেওয়া হচ্ছে। ধর্ষণের ঘটনায় থানায় মামলা হওয়ার পর ধর্ষক আলম মিয়া (২৫) ক্ষিপ্ত হয়ে আজ শুক্রবার ওই হুমকি দিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শিশুটির মা মালেকা বেগম এমন অভিযোগ করেছেন সাংবাদিকদের কাছে।

উপজেলার সীমান্ত ঘেষা বালিয়ামারী আদর্শ গ্রামে অবস্থিত নির্যাতিত নির্যাতিত পরিবারটি বাড়িতে শিশুটির মা অভিযোগ করে আরো বলেন, “সকাল বাইত্তে পুলিশ আইছিল। সব কিছু শুইনা গেছে। পুলিশ যাওয়ার পরই ধর্ষক আলম মিয়া গেরামের মাইনসের কাছে কইছে যদি থানা থিকা মামলা তুইলা না আনে তাহলে ওই শিশুটিকে খুন করে সীমান্তের ওপারে ফেলে দিব। ”

গত শনিবার (১০ সেপ্টেম্বর)  বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে ওই শিশুটিকে সীমান্ত ঘেষা কালাইরচর নামক স্থানে ফাঁকা মাঠে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে অভিযুক্ত লম্পট আলম মিয়া। সে একই গ্রামের জনৈক ফুল মিয়ার ছেলে। আহত অবস্থায় শিশুটিকে প্রথমে রাজীবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং পরে জামালপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়াসহ ডাক্তারী পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। এরপর থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করা হয়। নির্যাতিত পরিবারটির স্বজন জাহাঙ্গীর আলম জানান, শিশুটির বাবা নেই। তারা খুবই গরীব।

রাজীবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পপ (পরিবার পরিকল্পনা) কর্মকতা ডা. দেলোয়ার হোসেন প্রাথমিক চিকিৎসার সময় শিশুটির ওপর যে পাশবিক নির্যাতন চালানো হয়েছে তার আলামত পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

রৌমারী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি, তদন্ত) রুহানী বিপিএম জানান, অভিযুক্ত ধর্ষককে গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশ তৎপরতা চালাচ্ছে।


মন্তব্য