kalerkantho

রবিবার। ৪ ডিসেম্বর ২০১৬। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


রেলে এক মাসে ১০ লাখ টাকার ভারতীয় চোরাই পণ্য আটক

সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি   

১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৯:০৩



রেলে এক মাসে ১০ লাখ টাকার ভারতীয় চোরাই পণ্য আটক

সৈয়দপুর রেলওয়ে থানা পুলিশের ট্রেনে চোরচালান বিরোধী অভিযান অব্যাহত রয়েছে। এ অভিযানে গত এক মাসে বিপুল পরিমাণ ভারতীয় চোরাই পণ্য উদ্ধার করেছে।

গত আগষ্ট মাসে উদ্ধারকৃত ভারতীয় চোরাই পণ্যের মূল্য প্রায় ১০ লাখ টাকা।

রেলওয়ে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, রেলওয়ে পুলিশ ট্রেনের যাত্রীদের নিরাপত্তার দেয়ার পাশাপাশি ট্রেনে চোরাচালান নিয়ন্ত্রণে অভিযান পরিচালনা করে থাকেন। গত ঈদুল আজহার আগে রেলওয়ে পুলিশ তাদের চোরাচালান বিরোধী অভিযান আরো কঠোর করেন। প্রতিটি ট্রেনে যাত্রীদের গতিবিধির ওপর কঠোর নজরদারি অব্যাহত রাখেন। এছাড়াও সন্দেহ হলেই ট্রেনে যাত্রীদের সব ধরনের লাগেজ ও ব্যাগ তল্লাশি করা হয়। প্রায় প্রতিদিনই যাত্রীদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় ভারতীয় চোরাইপণ্য।

গত আগষ্ট মাসে অভিযানে উদ্ধারকৃত ভারতীয় মালামালের মধ্যে রয়েছে ভারতীয় নিষিদ্ধ ফেন্সিডিল, মদ, ভারতীয় জিরা, শাড়ি, ওড়না, লেহেঙ্গা, থ্রীপিস, ট্যাবলেট, গ্লাস, সাসপেন,বিট লবন,পলিথিন শর্ট,হরলিক্স, পোস্তদানা,পাউডার মিনি সেম্পু প্রভূতি। রেলওয়ে পুলিশের হিসাব অনুযায়ী  আগষ্ট মাসে উদ্ধারকৃত ভারতীয়  চোরাই মালামালের মূল্য ৯ লাখ ৭৯ হাজার ৯ শ’ টাকা বলে জানা গেছে।

সৈয়দপুর রেলওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এ কে এম লুৎফর রহমান জানান, রেলওয়ে পুলিশ যাত্রীদের সার্বিক নিরাপত্তাসহ ট্রেনে পুলিশের চোরাচালান বিরোধী অভিযান অব্যাহত রয়েছে। আর এ অভিযানে চোরাচালানীদের দৌরাত্ম্য আর আগে মতো নেই। ফলে ট্রেনে চোরাচালান অনেকটাই বন্ধ হয়ে গেছে।


মন্তব্য