kalerkantho

রবিবার। ৪ ডিসেম্বর ২০১৬। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


সিরাজগঞ্জে আসামী ধরতে গিয়ে হামলার শিকার পুলিশ; আহত ৪

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি   

১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৭:৪২



সিরাজগঞ্জে আসামী ধরতে গিয়ে হামলার শিকার পুলিশ; আহত ৪

সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জে নারী নির্যাতন মামলায় দায়ের করা ওয়ারেন্টভুক্ত আসামীকে ধরতে  গিয়ে আসামী পক্ষের হামলায় পুলিশের একজন এসআই ও ২ কনস্টেবল আহত হয়েছেন। এক পর্যায়ে পুলিশের অতিরিক্ত একটি দল অবরুদ্ধ পুলিশ সহ মামলার একজন সাক্ষীকে উদ্ধার করে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে উপজেলার হাতেম হাসিল গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহতরা হলো-সিরাজগঞ্জ সদর থানার  পুলিশের উপ-পরিদর্শক সেলিম রেজা, কনস্টেবল শহিদুল ইসলাম ও রফিকুল ইসলাম এবং মামলার স্বাক্ষী জহুরুল ইসলাম।

রায়গঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান জানান, সদর থানায় দায়েরকৃত নারী নির্যাতন মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত প্রধান আসামী রায়গঞ্জ উপজেলার হাসলি গ্রামের ইমান আলীকে গ্রেফতার করতে দুই কনস্টেবলসহ এসআই সেলিম রেজা পাশ্ববর্তী হাতেম-হাসিল গ্রামের একটি বিয়ে বাড়ীতে অভিযান চালান।   পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে আসামী ইমান আলী বিয়ে বাড়ীর লোকজনের সহায়তায় পালিয়ে যায়। আসামী পালিয়ে যেতে সহায়তা করার পর আসামীর স্বজনেরা সংঘবদ্ধভাবে পুলিশের উপর চড়াও হয়ে মারপিট চালায়। পরে তারা পুলিশকে অবরুদ্ধ করে রাখে। খবর পেয়ে রায়গঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে এবং অবরুদ্ধ পুলিশ সদস্যদের উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

এদিকে আসামী ইমান আলীর স্বজনরা জানিয়েছেন, পুলিশ উত্তেজিত হয়ে বিয়ে বাড়ীর এক মহিলাকে বন্দুক দিয়ে আঘাত করলে উপস্থিত আমন্ত্রিত লোকজন ক্ষুব্ধ হয়ে পুলিশের উপর চড়াও হয়।

তবে এসআই সেলিম রেজা মোবাইল ফোনে মহিলাকে আঘাত করার বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, তারা ওয়ারেন্টভুক্ত আসামীকে পালিয়ে যেতে সহায়তা করার পর সংঘবদ্ধভাবে পুলিশের উপর আক্রমণ করে।


মন্তব্য