kalerkantho

শনিবার । ১০ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


সাভারে উপজেলা পরিষদের কয়েকটি অফিসে চুরি!

নিজস্ব প্রতিবেদক, সাভার (ঢাকা)   

১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৭:৩৮



সাভারে উপজেলা পরিষদের কয়েকটি অফিসে চুরি!

সাভার উপজেলা পরিষদ কমপ্লেক্সে কয়েকটি সরকারি অফিসে দুঃসাহসিক চুরির ঘটনা ঘটেছে। সংঘবদ্ধ দুর্বৃত্তরা কলাপসিবল গেটের আংটা কেটে সরকারি বিভিন্ন অফিসের তালা ও তালা লাগানোর আংটা কেটে কম্পিউটারের বেশ কয়েকটি মনিটর ও সিপিইউসহ মূল্যবান কাগজপত্র লুট করে নিয়ে গেছে।

বৃহস্পতিবার ঈদের সরকারি ছুটি শেষে নিজ নিজ কর্মস্থলে যোগ দিতে এসে সংশ্লিষ্ট অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ বিষয়টি বুঝতে পারেন। অফিসগুলোতে চুরির সংবাদ শুনে সাভার উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ আবু নাসের বেগ, উপজেলা আনসার কমান্ডেন্ট ও সাভার মডেল থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

সংশ্লিষ্ট অফিসগুলোর কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সাথে আলাপ করে জানা যায়, দুবৃত্তরা উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তার কক্ষের তালা ভেঙ্গে কম্পিউটারের একটি মনিটর ও একটি সিপিইউ, সমবায় কর্মকর্তার অসিফ সহকারীর কক্ষ থেকে একটি মনিটর, একটি সিপিইউ, উপজেলা পরিসংখ্যান কর্মকর্তার কক্ষের তালা ভেঙ্গে একটি মনিটর, একটি সিপিইউ এবং উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার অফিস সহকারীর কক্ষ থেকে একটি মনিটর ও তিনটি সিপিইউ’র ভিতরের মাদারবোর্ড, হার্ড ডিস্কসহ মূল্যবান সামগ্রী লুট করে নিয়ে গেছে।

সমবায় কর্মকর্তার অসিফ সহকারীর কক্ষ থেকে মালামাল চুরি করে নিয়ে যাওয়ার সময় দুবৃত্তরা অফিসের দরজায় নতুন একটি তালা লাগিয়ে দিয়ে যায়। এছাড়া অফিসগুলো থেকে মূল্যবান কাগজপত্রও চুরি হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

উপজেলা পল্লী উন্নয়ন অফিসের এমএলএসএস নিতাই চন্দ্র পাল জানান, বুধবার রাত ১০ টার দিকে উপজেলা সমাজসেবা অফিসের সামনে বসে তিনটি ছেলেকে তিনি নেশা করতে দেখে সরিয়ে দিয়েছেন। এরপর সমাজসেবা অফিসের নৈশ প্রহরী কিসলুর সাথে রাত ১ টা পর্যন্ত জেগে থেকে তিনি তার নিজের অফিসে গিয়ে শুয়ে পড়েন। সকাল সাড়ে ৬ টার দিকে ঘুম থেকে উঠে তিনি দরজা খুলতে গিয়ে দরজাটি বাইরে থেকে আটকানো অবস্থায় দেখতে পান। পরে নৈশ প্রহরী কিসলুকে ফোন করে এনে সে দরজা খুলে দিলে পরে তিনি বের হন। এরপর সকাল ৯ টার দিকে তিনি জানতে পারেন চারটি অফিসে চুরির ঘটনা ঘটেছে।

এ ব্যাপারে সাভার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু নাসের বেগ চুরির বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, চারটি সরকারি অফিসে তালা ভেঙ্গে চুরির খবর শুনে তিনি থানা পুলিশ ও আনসার প্রধানকে নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। দুর্বৃত্তরা অফিসগুলোর তালা ও দরজায় লাগানো আংটা কেটে চারটি মনিটর ও ছয়টি সিপিইউ নিয়ে গেছে। এ ব্যাপারে বৃহস্পতিবার সকালে সাভার মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। তিনি আশা করছেন দুর্বৃত্তারা শিগগির ধরা পড়ে যাবে। অফিসগুলোর কম্পিটারে থাকা সরকারি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য খোয়া যাওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, চুরির ঘটনাটি একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা বলেই তিনি মনে করছেন। এছাড়া যেসব কম্পিউটার চুরি হয়েছে সেগুলোর ডাটা ব্যাকআপ অন্যত্র সংরক্ষিত থাকায় তেমন কোন সমস্যা হবেনা বলেও জানান তিনি। নিরপত্তার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, নিরাপত্তার জন্য উপজেলা পরিষদ কমপ্লেক্সে নৈশ প্রহরীর পাশাপাশি আনসার সদস্যরা নিয়োজিত ছিল। এছাড়া উপজেলা আনসার ভিডিপি কার্যালয়ের পাশ থেকে এমন দুঃসাহসিক চুরির ঘটনায় দায়িত্বরত আনসার সদস্যদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও তিনি জানান।

এব্যাপারে সাভার মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মাহাফুজুর রহমান জানান, চুরির খবর শুনে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এঘটনায় সরকার বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে। আইগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


মন্তব্য