kalerkantho

রবিবার। ৪ ডিসেম্বর ২০১৬। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


নালিতাবাড়ীতে স্বামীর হাতে স্ত্রী নিহত

শেরপুর প্রতিনিধি    

১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৫:৪২



নালিতাবাড়ীতে স্বামীর হাতে স্ত্রী নিহত

শেরপুরের নালিতাবাড়ী স্ত্রী মনিকা বেগমকে (২২) খুন করে স্বামী পালিয়ে গেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে পুলিশ নালিতাবাড়ী উপজেলার চাঁদগাঁও গ্রামের নানার বাড়ি লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিহত মনিকা বেগম পাঁচগাঁও এলাকার পটিয়াকান্দি গ্রামের জমসেদ আলীর মেয়ে।

নালিতাবাড়ী থানার এসআই মো. গিয়াস উদ্দিন জানান, নিহত গৃহবধূ মনিকা বেগমের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। লাশের মুখে জখমের চিহ্ন রয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, বালিশ চাপা দিয়ে তাকে হত্যা করা হয়েছে। স্বামী রাকিবুল ইসলাম রাকিব তাকে হত্যার পর পালিয়ে গেছে বলে পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে।

পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, নালিতাবাড়ী উপজেলার উত্তর রানীগাঁও গ্রামের মোফাজ্জল হোসেনের ছেলে পোশাককর্মী রাকিবুল হাসান রাকিবের সঙ্গে প্রায় চার বছর আগে মনিকা বেগমের বিয়ে হয়। ঈদের ছুটিতে তারা গ্রামের বাড়ি আসেন। গতকাল  বুধবার স্বামী-স্ত্রী দুইজন মিলে গৃহবধূ মনিকার নানার বাড়ি চাঁদগাঁও গ্রামে বেড়াতে যান। রাতে সেখানে এক কক্ষে দুইজন ঘুমান। পরদিন আজ বৃহস্পতিবার সকালে স্ত্রী মনিকাকে মৃত পাওয়া যায়। স্ত্রীকে হত্যা করে স্বামী রাকিবুল পালিয়ে যায়।

নানা হারেজুল ইসলাম জানান, স্বামী-স্ত্রী দুইজন রাতে একত্রে এক কক্ষে ঘুমায় তারা। আজ বৃহস্পতিবার সকালে তাদের কক্ষ থেকে কোনো সাড়াশব্দ না পেয়ে দরজা ধাক্কা দিলে সেটি খুলে যায়। এ সময় মনিকাকে মৃত অবস্থায় দেখা যায়। তার স্বামী রাকিব স্ত্রীকে হত্যা করে পালিয়ে যায়। পরে পুলিশকে সংবাদ দিলে তারা লাশ উদ্ধার করে।

নালিতাবাড়ী থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই মো. গিয়াস উদ্দিন জানান, এ ঘটনায় নিহতের বাবা জমসেদ আলী বাদী হয়ে স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করেছেন। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য শেরপুর জেলা হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

 


মন্তব্য