kalerkantho

রবিবার। ৪ ডিসেম্বর ২০১৬। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


রামপালে মৎস্যঘেরে নিয়ে প্রেমিকাকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, আটক ৬

বাগেরহাট প্রতিনিধি   

১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৬:১৯



রামপালে মৎস্যঘেরে নিয়ে প্রেমিকাকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, আটক ৬

বাগেরহাটের রামপালে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তুলে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে এক তরুণীকে মৎস্যঘেরে নিয়ে পালাক্রমে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ করা হয়েছে। ওই তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগে আজ বুধবার দুপুরে ছয়জনকে আটক করেছে পুলিশ।

আটককৃতরা হচ্ছেন, বাগেরহাট জেলার রামপাল উপজেলার ওড়াবুনিয়া গ্রামের জিল্লু সরদারের ছেলে মুক্ত সরদার (২৩), জাহিদ শেখের ছেলে হাসান শেখ (২৫), ইস্রাফিল শেখের ছেলে বেলায়েত হোসেন (২৬), ইব্রাহিম শেখের ছেলে ইসমাইল শেখ (২৫), রামপাল উপজেলা সদরের শাজাহান শেখের ছেলে রাজু শেখ (২০) এবং শহর আলীর ছেলে মৎস্যঘের মালিক হামিদ শেখ (৫৫)। এদের মধ্যে হামিদ শেখ ছাড়া অপর পাঁচজন পেশায় দিনমজুর, মৎসঘের কর্মচারী এবং ভ্যানচালক বলে জানায় পুলিশ।
  
জানা গেছে, ঈদের দিন গতকাল মঙ্গলবার ইকোপার্কসহ বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখার কথা বলে রামপাল উপজেলার ওড়াবুনিয়া গ্রামের একটি মৎস্যঘেরে ওই তরুণীকে নিয়ে আটকে রেখে ছয়জন মিলে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ করে। মুক্ত সরদার নামে এক যুবক ওই তরুণীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ফুসলিয়ে তাকে মৎস্যঘেরে নিয়ে যায়। এর পরে সে ও তার চার সহযোগী এবং ওই মৎস্যঘের মালিক তার ওপর পাশবিক নির্যাতন চালায়। ২৫ বছর বয়সী ওই তরুণীর ডাকচিৎকারে পার্শ্ববর্তী মৎস্যঘের থেকে লোকজন ছুটে এলে রক্তত্ব অবস্থায় তাকে ফেলে পালিয়ে যায় ধর্ষকরা।


মন্তব্য