kalerkantho


গোপালগঞ্জে কিশোর হত্যার অভিযোগ

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি    

১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৫:৫৯



গোপালগঞ্জে কিশোর হত্যার অভিযোগ

গোপালগঞ্জে আ. হামিম শেখ (১৭) নামে এক কিশোরকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। প্রেমঘটিত কারণে তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে দাবি করেছে নিহতের পরিবার।


আজ সোমবার দুপুরে গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার কাজুলিয়া উত্তরপাড়া চালতাবাড়ী গ্রাম থেকে পুলিশ ওই কিশোরের লাশ উদ্ধার করে গোপালগঞ্জ সদর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। সে ওই গ্রামের আলাউদ্দিন শেখের ছেলে।

নিহতের ভগ্নিপতি নুর ইসলাম বলেন, "গতকাল রবিবার সন্ধ্যার পর আ. হামিম শেখ পার্শ্ববর্তী কামরুল হাওলাদারের বাড়িতে যায়। কামরুলের ভাইরার মেয়ের সঙ্গে হামিমের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। সম্প্রতি সে তার বাড়িতে বেড়াতে আসে। সেখানে সে তাদের সঙ্গে রাতের খাবার খায়। পরে রাতে সে আর বাড়ি ফিরে আসেনি। আজ সোমবার সকালে স্থানীয়রা বাড়ি থেকে প্রায় ৫০০ গজ দুরে একটি বাঁশ বাগানের মধ্যে মেহগনি গাছে ওড়না দিয়ে ঝুলন্ত লাশ দেখতে পায়। পরে তারা হামিমের পরিবার ও পুলিশকে খবর দেয়।

সদর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে সোমবার দুপুরে লাশ উদ্ধার করে।

নুর ইসলাম জানান, ওই মেয়েটির সঙ্গে বর্তমানে প্রেম নিয়ে তার (হামিম) ঝামেলা চলছিল। এ কারণে তাকে ওড়না দিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর গালে ও চোখে এসিড ঢেলে গাছে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। নিহতের চাচা আনিচুর রহমান জানান, নিহতের চোখ, জিহ্বা, ঠোঁট, গলাসহ শরীরের বেশ কিছু অংশ গলে বিকৃত হয়ে গেছে। দেখে মনে হচ্ছে এসিড অথবা কোনো দাহ্য পদার্থ দিয়ে শরীরের এসব অংশ পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া তার পা ও হাতের কবজিতে আঘাতের চিহৃ রয়েছে।

গোপালগঞ্জ সদর থানার এসআই মাসুদুর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেছেন, "নিহতের আলামত দেখে সন্দেহ হওয়ায় ময়নাতদন্তের জন্য লাশ গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পাওয়ার পর মৃত্যুর রহস্য উদঘাটন করা সম্ভব হবে। "  

 


মন্তব্য