kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


বাংলাদেশ খাদ্য উদ্বৃত্তের দেশে পরিণত হয়েছে : খাদ্যমন্ত্রী

কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি    

১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৩:২১



বাংলাদেশ খাদ্য উদ্বৃত্তের দেশে পরিণত হয়েছে : খাদ্যমন্ত্রী

"২০০৬ সালে বিএনপি সরকার ক্ষমতা ছেড়ে যাওয়ার সময় দেশকে খাদ্য ঘাটতিতে ফেলে গেছে। শেখ হাসিনার সরকার ক্ষমতায় এসে সে ঘাটতি পূরণ করেছে।

এখন বাংলাদেশ খাদ্য উদ্বৃত্তের দেশে পরিণত হয়েছে। আমরা এখন চাল রপ্তানি করছি। বাংলাদেশ চাল উৎপাদনে এখন চতুর্থ স্থানে রয়েছে। "

আজ শনিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলা খাদ্য গুদামের সামনে 'শেখ হাসিনার বাংলাদেশ, ক্ষুধা হবে নিরুদ্দেশ' শীর্ষক খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম।

মন্ত্রী বলেন, "১০ টাকা কেজি চাল কর্মসূচিতে সরকার ২২০০ কোটি টাকা ভর্তুকি দিচ্ছে। এটা আসলে ভর্তুকি নয় ইনসেনটিভ। এটা গরিবদের প্রাপ্য। যারা বাংলাদেশকে তলাবিহিন ঝুড়ি বলতো। তারাই এখন বলে দেশ উপচে পড়া ঝুড়িতে পরিণত হয়েছে। " তিনি বলেন, "নেপালের ভূমিকম্পের পর আমারা দুইবারে ২০ হাজার মেট্রিকটন চাল দিয়ে সহায়তা করেছি। খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির আওতায় সারা দেশে ৫৫ লাখ পরিবারকে মাসে ৩০ কেজি করে পাঁচ মাস চাল দেওয়া হবে। বছরের সেপ্টেম্বর, অক্টোবর, নভেম্বর এবং মার্চ, এপ্রিল- এই পাঁচ মাস চাল বিতরণ করা হবে। চাল বিতরণে জিরো টলারেন্স রাখা হবে। কোনোরকম অনিয়ম সহ্য করা হবে না। "

অনুষ্ঠানে কেরানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবুল বাসার মোহাম্মদ ফখরুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খাদ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. বদরুল হাসান, উপজেলা চেয়ারম্যান শাহিন আহমেদ, খাদ্য মন্ত্রণালয়ের উপসচিব কাউসার আহমেদ, ঢাকা বিভাগের আঞ্চলিক খাদ্য নিয়ন্ত্রক এ কে এম ফযলুর রহমান এবং উপজেলা খাদ্য পরিদর্শক আব্দুর রহমান খান।

 


মন্তব্য